একুশের চেতনায় উদ্বুদ্ধ হওয়ার আহ্বান ইবিএইইবি উপাচার্যের

20

এক্সিম ব্যাংক কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় বাংলাদেশ (ইবিএইউবি)-এ যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত হয়েছে। গভীর শ্রদ্ধার সাথে মহান ভাষা আন্দোলনের সূর্যসন্তানদের শ্রদ্ধাবনত চিত্তে স্মরণ করেন এবং মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের চেতনায় উজ্জীবিত হয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান-এর আদর্শে মাদক, জঙ্গিবাদ ও সহিংসতাকে “না” বলে একটি সৎ দুর্নীতিমুক্ত সোনার বাংলা গড়ে তুলতে সকলকে ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন এক্সিম ব্যাংক কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. এবিএম রাশেদুল হাসান।
তিনি বলেন, অমর একুশে ফেব্রুয়ারি রক্তের প্লাবনের মধ্য দিয়ে আজ সারা বিশ্বে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের গৌরবময় আসনে আসীন। সর্বশেষে জাতিসংঘ থেকে একুশে ফেব্রুয়ারিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে ঘোষণার স্বীকৃতি অর্জন করার নিরন্তর প্রচেষ্টার জন্য উপাচার্য প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।
২১ ফেব্রুয়ারি সূর্যোদয়ের সাথে সাথে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকে উপাচার্য প্রফেসর ড. এবিএম রাশেদুল হাসান জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত করণ ও কালো পতাকা উত্তোলন করেন। এরপর উপাচার্যের নেতৃত্বে স্বল্পপরিসরে কালো ব্যাজ ধারণ করে নবাবগঞ্জ সরকারি কলেজে অবস্থিত শহীদ মিনারে ভাষা শহীদদের স্মরণে পুষ্প¯তবক অর্পণের মাধ্যমে শ্রদ্ধার্ঘ্য নিবেদন করেন। এরপর সকাল ১০টায় দিবসটি উপলক্ষে ভার্চুয়াল আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। আইন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান এসএম শহিদুল ইসলাম-এর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে আলোচনা অংশগ্রহণ করেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. এবিএম রাশেদুল হাসান।
আলোচনায় আরো অংশ নেন, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক ও ট্রেজারার (অ.দা) শাহারিয়ার কবীর, কৃষি অনুষদের ডীন ও রেজিস্ট্রার (অ.দা) ড. দেলোয়ার হোসেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. মশিউর রহমান, কৃষি অর্থনীতি বিভাগের কোঅর্ডিনেটর মেহনাজ আফসার, ভাষা বিষয়ক স্বরচিত কবিতা পাঠ করেন ডীন ড. দেলোয়ার হোসেন ও সহকারী অধ্যাপক এসএম ফরিদুল ইসলাম।
অনুষ্ঠানে আরো যুক্ত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিচালক (আইকিউএসি) ড. শামীমুল হাসান, পরিচালক (পরিকল্পনা ও উন্নয়ন) মকবুল হোসেন, পরিচালক (পিআরডি) ড. সোহেল আল বেরুনী, ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ড. মোস্তফা মাহমুদ হাসান, কৃষি ও কৃষি অর্থনীতি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ড. আশরাফুল আরিফসহ সকল শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারি এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীবৃন্দ।
আলোচনা সভা শেষে শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে “ভাষা আন্দোলন ও বঙ্গবন্ধু” বিষয়ক রচনা প্রতিযোগিতার ফলাফল ঘোষণা করা হয়। রচনা প্রতিযোগিতায় প্রথম স্থান অধিকার করেছে কৃষি অনুষদের ১৫তম ব্যাচের শিক্ষার্থী মোছাঃ নাজনিন খাতুন, ২য় হয়েছে ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদের ১৩তম ব্যাচের শিক্ষার্থী মরিয়ম মারিহা, ৩য় হয়েছে কৃষি অনুষদের ৯ম ব্যাচের শিক্ষার্থী মো. আবু সাইদ শাহ।