সবার জন্য ভ্যাকসিন নিশ্চিত করা বৈশ্বিক রাজনৈতিক অঙ্গীকার : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

8

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, সবার জন্য কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন নিশ্চিত করতে বিশ্বের দেশগুলোর মধ্যে শক্তিশালী অংশীদারিত্ব গড়ে তোলার লক্ষে একটি জোরালো রাজনৈতিক অঙ্গীকার জরুরি। গতকাল বৃহস্পতিবার রাজধানীর মহাখালীতে শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রো-লিভার ইনস্টিটিউট অ্যান্ড হসপিটালে স্থাপিত করোনা টিকা কেন্দ্রে বেশ কয়েকজন বিদেশী কূটনীতিকের সঙ্গে কোভিড-১৯ এর ভ্যাকসিন নেয়ার পর তিনি এ কথা বলেন।
পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘সকলের জন্য ভ্যাকসিন নিশ্চিত করতে পরস্পরকে সহায়তার লক্ষে আমাদের একটি বৃহত্তর অংশীদারিত্ব ও একটি রাজনৈতিক অঙ্গীকার প্রয়োজন।’ মোমেন আরো বলেন, বিশ্বের যে ৩০ থেকে ৩৫টি দেশ কোভিড- ১৯ এর ভ্যাকসিন পেয়েছে, বাংলাদেশ তাদের অন্যতম। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্বের কারণেই এটা সম্ভব হয়েছে। তিনি বলেন, ‘এমনকি, এখনো অনেক উন্নত দেশও কোভিড-১৯ এর ভ্যাকসিন পায়নি।’
পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনায়, বাংলাদেশ সরকার এই ভ্যাকসিন উদ্ভাবনের অনেক আগেই বিশ্বের বিভিন্ন দেশের কাছে ভ্যাকসিন চাইতে শুরু করেন। তিনি আরো বলেন, ‘আমরা সবাইকে ভ্যাকসিন দিব। একজনও বাদ পড়বে না।’
গতকাল বৃহস্পতিবার যেসব কূটনীতিক ভ্যাকসিন নিয়েছেন- তাদের মধ্যে বাংলাদেশে নিযুক্ত ব্রিটিশ হাই কমিশনার রবার্ট চ্যাটার্টন ডিকসনও রয়েছেন। ১০ ফেব্রুয়ারি সরকার বিদেশী কূটনীতিকদের জন্য কোভিড-১৯ এর ভ্যাকসিন প্রদান শুরু করে। উদ্বোধনী দিনে ৩০ জনের বেশি কূটনীতিক করোনার টিকা নেন।
পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা জানান, ধীরে ধীরে বাংলাদেশে অবস্থানরত ১ হাজার ২০০ বিদেশী কূটনীতিকের সকলকেই ভ্যাকসিন দেয়া হবে। দেশে ৭ ফেব্রুয়ারি থেকে করোনার গণটিকাদান কর্মসূচি শুরু হয়েছে।