ইংল্যান্ডকে উড়িয়ে সমতায় ভারত

6

স্বাগতিক হয়েও প্রথম টেস্টে ইংল্যান্ডের কাছে অসহায় আত্মসমর্পণ করেছিল ভারত। দ্বিতীয় টেস্টে সেই ইংলিশদেরই বোতলবন্দি করে রাখলো স্বাগতিকরা! তাতে চেন্নাইয়ে ভারত ৩১৭ রানের বড় ব্যবধানে জিতে ৪ ম্যাচের সিরিজে সমতা আনলো ১-১ ব্যবধানে। ঘূর্ণি পিচে প্রথম ইনিংস থেকেই ভারতের আধিপত্যটা ছিল একচেটিয়া। রোহিত শর্মার ব্যাটে সমৃদ্ধ হয় স্কোর বোর্ড। তার ১৬১ রানের সুবাদে জমা পড়ে ৩২৯ রান। বিপরীতে ঘূর্ণি পিচে ভারতের সামনে ১৩৪ রানেই শেষ হয় ইংলিশদের প্রথম ইনিংস। ১৯৫ রানের লিড পাওয়া ভারতের দ্বিতীয় ইনিংসে আলো ছড়ান স্পিনার রবিচন্দ্রন অশ্বিন। একই ম্যাচে ৫ উইকেট নেওয়ার সঙ্গে তুলে নেন সেঞ্চুরিও! তাতে দ্বিতীয় ইনিংসে মূল প্রতিরোধটাই আসে তার ব্যাট থেকে। অশ্বিনে ভর করে দ্বিতীয় ইনিংসে ২৮৬ রান পায় স্বাগতিকরা। আর ইংল্যান্ডের সামনে দাঁড়ায় ৪৮২ রানের অসম্ভব লক্ষ্য। কিন্তু আড়াই দিন সময় থাকলেও চিপকের এই পিচে ব্যাট হাতে দাঁড়ানোই দুষ্কর হয়ে পড়ে সফরকারীদের। অসম্ভব লক্ষ্য তাড়া করতে গিয়ে তৃতীয় দিনই ৫৩ রানে ৩ উইকেট হারায় ইংল্যান্ড। চতুর্থ দিনও যার ব্যতিক্রম ছিল না। ব্যাটসম্যানদের আসা-যাওয়ার খেলায় শেষ দিকে মঈন আলী ১৮ বলে ঝড়ো ৪৩ রানের ইনিংস খেলে স্কোরবোর্ডে রান তুলে দর্শকদের বিনোদন দেওয়ার চেষ্টা করেছেন। কিন্তু বিশাল লক্ষের বিপরীতে প্রয়োজন ছিল বড় জুটির। সেটিই পায়নি ইংলিশরা। এ ছাড়া আর উল্লেখযোগ্য ইনিংস বলতে ওপেনার রোরি বার্নস করেন ২৫, ড্যান লরেন্স ২৬ ও ৩৩ রান করেন অধিনায়ক জো রুট। ইংল্যান্ড দ্বিতীয় ইনিংসে গুটিয়ে যায় ১৬৪ রানে। এই ইনিংস বল হাতে ঘূর্ণি দাপট দেখিয়েছেন অভিষিক্ত অক্ষর প্যাটেল। ৬০ রানে নিয়েছেন ৫ উইকেট। ৫৩ রানে এই ইনিংসে ৩টি নিয়েছেন অশ্বিন। সেঞ্চুরি ও মোট ৮ উইকেট নিয়ে ম্যাচসেরাও হয়েছেন অশ্বিন।