বাল্যবিবাহে কোনো ছাড় নয় : অ্যাডভোকেসি সভায় জেলা প্রশাসক

9

চাঁপাইনবাবগঞ্জে শিশুবিবাহ প্রতিরোধে জেলা পর্যায়ে অ্যাডভোকেসি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে এই সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক মো. মঞ্জুরুল হাফিজ।
জেলা প্রশাসক বলেন, আমরা শিশুবিবাহ প্রতিরোধে যে সমস্ত কাজ বাস্তবায়ন করছি তা অবশ্যই লিপিবদ্ধ থাকতে হবে। কথায় নয়- কাজে প্রমাণ করতে হবে আমরা শিশুবিবাহ প্রতিরোধে কাজ করছি। শুধু ছবি তুললাম আর ফেসবুকে ছেড়ে দিলাম তা হবে না।
জেলা প্রশাসনে শিশুবিবাহ নিরোধ সেল গঠন করার প্রস্তাব উত্থাপন করে জেলা প্রশাসক বলেন- আমি চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলাকে শিশুবিবাহ মুক্ত করতে চাই। এক্ষেত্রে কোনো ছাড় নয়। আইনজীবীদের উদ্দেশ্যে তিন বলেন, ট্রাইব্যুনালে কতটি বিবাহ বিচ্ছেদ সংক্রান্ত মামলা হয়েছে তার সংখ্যা প্রতি মাসে রিপোর্ট থাকা জরুরি। বয়স সংক্রান্ত এফিডেভিট না করার জন্য আহ্বান জানান।
জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত এই সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের স্থানীয় সরকার শাখার উপপরিচালক এ.কে.এম. তাজকির-উজ-জামান।
সভায় মুক্ত আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন- চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম, সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোজাফফর হোসেন, জেলা ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উপপরিচালক আবুল কালাম, জেলা সমাজসেবা অধিদপ্তরের উপপরিচালক উম্মে কুলসুম, জেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের উপপরিচালক সাহিদা আখতার।
এর আগে সূচনা বক্তব্য দেন- অ্যাসোসিয়েশন ফর কমিউনিটি ডেভেলপমেন্ট-এসিডি’র পরিচালক (প্রোগ্রাম) শারমিন সুবরীনা এবং সভার লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য তুলে ধরেন সংস্থাটির প্রকল্প সমন্বয়কারী মনিরুল ইসলাম পায়েল।
সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন- জেলার বিভিন্ন সরকারি কর্মকর্তা, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য, আইনজীবী, সুশীল সমাজের প্রতিনিধি, কাজী, ইমাম, পুরোহিত, শিক্ষক, এনজিও প্রতিনিধি, মিডিয়া প্রতিনিধি, দলসদস্যসহ এসিডির প্রোগ্রাম অফিসার হুমায়ুন কবির ও রুপম কুমার দেব।
ইউনিসেফের অর্থায়নে শিশুবিবাহ বন্ধে জেলা পর্যায়ের এই অ্যাডভোকেসি সভার আয়োজন করে এসিডি।