রহনপুর পৌর নির্বাচন : আলোচনায় বিদ্রোহী প্রার্থীরা

80

আল-মামুন বিশ্বাস, গোমস্তাপুর

চাঁপাইনবাবগঞ্জের রহনপুর পৌরসভা নির্বাচন জমে উঠেছে। প্রার্থীরা রতের ঘুম হারাম করে ছুটছেন ভোটারদের দ্বারে দ্বারে। এবার মেয়র পদে আলোচনায় উঠে এসেছেন বড় দুই দলের বিদ্রোহী প্রার্থীরা। পৌর এলাকার প্রায় প্রত্যেকটি ওয়ার্ডে বিদ্রোহী প্রার্থীদের নিয়ে চলছে বেশ সরব আলোচনা।
নির্বাচনকে ঘিরে আওয়ামী লীগ প্রার্থী গোলাম রাব্বানী বিশ্বাস ও বিদ্রোহী প্রার্থী মতিউর রহমান খান একে অন্যের বিরুদ্ধে অভিযোগ এনে পাল্টাপাল্টি সংবাদ সম্মেলন করেছেন। এ নিয়ে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের ভোটারদের মধ্যে বিরূপ মনোভাব কাজ করছে। সবমিলিয়ে মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীরা বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকা-ের প্রতিশ্রুতি নিয়ে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন। করছেন নিজের পক্ষে ভোট প্রার্থনা।
এবার পৌর মেয়র পদে ৭ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এরা হলেন- আওয়ামী লীগ মনোনীত গোলাম রাব্বানী বিশ্বাস, বিএনপি মনোনীত বর্তমান মেয়র তারিক আহমদ, স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী হিসেবে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মতিউর রহমান খান মতি, বিএনপির বিদ্রোহী প্রার্থী ডা. মফিজউদ্দিন ও আশরাফুল ইসলাম, বাংলাদেশ কংগ্রেসের জোহনা খাতুন ও নুরে আলম সিদ্দিকী বিপ্লব। এছাড়া সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৪৩ জন ও সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে লড়ছেন ১৭ জন প্রার্থী।
নির্বাচনী এলাকায় ঘুরে দেখা যায়, কনকনে শীত উপেক্ষা করে নির্ঘুম প্রচারণায় ব্যস্ত প্রার্থীরা। পোস্টারে পোস্টারে ছেয়ে গেছে রহনপুর পৌর এলাকা। সেই সঙ্গে নির্বাচন আচরণ বিধি মেনে মাইকে মাইকে চলছে প্রার্থীদের প্রচারণা। পাড়া-মহল্লায়, হাটে-বাজারে, চায়ের আড্ডায় ভোটাররা হিসাব কষতে শুরু করেছেন। কে হচ্ছেন পরবর্তী পৌর মেয়র? শুধু ৯টি ওয়ার্ডই নয়, পুরো গোমস্তাপুর উপজেলা রহনপুর পৌর নির্বাচন নিয়ে সরব।
ভোটের অঙ্কে যে কোনো নির্বাচনে এগিয়ে থাকে বড় দুটি রাজনৈতিক দলের প্রার্থীরা। তবে এবারের রহনপুর পৌর নির্বাচনে ভোটারদের মধ্যে বিদ্রোহী প্রার্থীদেরও জনপ্রিয়তা রয়েছে, এমনই অভিমত অনেক ভোটারের।
এ নির্বাচনের সহকারী রিটার্নিং অফিসার ও উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা সিরাজুল ইসলাম জানান, প্রার্থীরা তাদের আচরণ বিধি মেনে সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠানে সহায়তা করবেন। আগামী ৩০ জানুয়ারি ৩য় ধাপে অনুষ্ঠিতব্য এ পৌর নির্বাচনে ৯টি ওয়ার্ডের ১১টি কেন্দ্রে মোট ২৭ হাজার ৯৭ জন ভোটার ব্যালটের মাধ্যমে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। এবার ১৩ হাজার ১৮৪ জন পুরুষ ও ১৩ হাজার ৯১৩ জন মহিলা ভোটার রয়েছেন।