গ্রামীণ অর্থনীতি পুনর্গঠনে সর্বাত্মক কাজ করছে পিকেএসএফ : ওয়েবিনারে অভিমত বক্তাদের

7

করোনাকালেও গ্রামীণ অর্থনীতি পুনর্গঠন ও প্রান্তিক পর্যায়ে মানুষের কল্যাণে পল্লী কর্ম-সহায়ক ফাউন্ডেশন (পিকেএসএফ) ব্যাপক কার্যক্রম পরিচালনা করেছে। করোনাকালের সকল প্রতিকূলতা ছাপিয়ে বিস্তারিত কর্মসূচি অব্যাহত ছিল। বৃহস্পতিবার, ‘করোনাকালীন ফাউন্ডেশনের ভূমিকা’ শীর্ষক ওয়েবিনার আয়োজন করা হয়।
পল্লী কর্ম-সহায়ক ফাউন্ডেশনের পরিচালনা পর্ষদের সদস্য, এর সহযোগী সংস্থার ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাসহ সারাদেশ থেকে প্রায় ৫০০ জনের অংশগ্রহণে এই ওয়েবিনার অনুষ্ঠিত হয়। পিকেএসএফের অফিসিয়াল ফেসবুক পেইজে অনুষ্ঠানটি সরাসরি সম্প্রচারিত হয়।
ওয়েবিনারে প্রধান অতিথি ছিলেন সরকারের তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ এমপি এবং বিশেষ অতিথি ছিলেন সিনিয়র সচিব আসাদুল ইসলাম। পিকেএসএফের চেয়ারম্যান ড. কাজী খলীকুজ্জমান আহমদ এতে সভাপতিত্ব করেন। ওয়েবিনারে স্বাগত বক্তব্য দেন পিকেএসএফের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ মঈন উদ্দীন আবদুল্লাহ।
পিকেএসএফের উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. ফজলুল কাদের কার্যক্রম সম্পর্কে বিশদ আলোচনা করেন। তিনি জানান, করোনাকালে মাঠপর্যায়ে ১১ কোটি গ্রাহকের ঋণের কিস্তি আদায় সম্পূর্ণভাবে বন্ধ রাখা হয়। বিশেষভাবে উল্লেখ্য যে, সহযোগী সংস্থাসমূহও নিজস্ব তহবিল থেকে প্রায় ৩০ কোটি টাকার বিভিন্ন ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে ৪ কোটি টাকা অনুদানও প্রদান করেছে পিকেএসএফ। সহযোগী সংস্থাসমূহ জুলাই-ডিসেম্বর ২০২০ সময়ে মাঠপর্যায়ে প্রায় ২৭ হাজার ৫০০ কোটি টাকা বিতরণ করেছে। এই ছয় মাসে পিকেএসএফ নতুন অর্থ প্রবাহ করেছে প্রায় ২ হাজার ২০০ কোটি টাকা।
ভার্চুয়াল এই সভায় আরো বক্তব্য দেন পিকেএসএফের উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. মো. জসীম উদ্দিন। এছাড়া উন্মুক্ত আলোচনায় অংশ নেন বিভিন্ন সহযোগী সংস্থার নির্বাহী প্রধানবৃন্দ।