সপ্তাহের বাজারদর : খোলা সয়াবিনের দাম এখন ১২৪ টাকা

13

চাঁপাইনবাবগঞ্জে ৯০ টাকার খোলা সয়াবিন শুক্রবার বিক্রি হয়েছে ১২৪ টাকা কেজি। কয়েক মাস আগেও এই তেলটি বিক্রি হয়েছে ৯০ থেকে ৯২ টাকা কেজি দরে। এদিকে নতুন পেঁয়াজ বাজারে আসায় এর দাম অনেকটা স্বাভাবিক পর্যায়ে এসেছে। প্রয়োজনীয় এ পণ্যটি শুক্রবার জেলাশহরের নিউমার্কেট বাজারে বিক্রি হয়েছে ৩৫ টাকা কেজি দরে। বাজারে সবজির দাম কমলেও আমদানি কম থাকায় বেড়েছে প্রায় সকল মুরগির দাম।
নিউমার্কেট কাঁচাবাজারের মুদি বিক্রেতা মাসুম জহির ও সাদিরুল ইসলাম বলেন, গত সপ্তাহের তুলনায় এ সপ্তাহে ডিমের দাম কমেছে। গত সপ্তাহে ২৯ টাকা হালি বিক্রি হলেও এখন বিক্রি হচ্ছে ২৭-২৮ টাকা। এছাড়া দেশী পেঁয়াজ ৪৫ থেকে কমে ৩৫ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে। তবে দেশী রসুন ১০০ থেকে বেড়ে হয়েছে ১১০ টাকা কেজি, খোলা সয়াবিন ১১৮ থেকে বেড়ে ১২২-১২৪ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। খোলা সয়াবিনের দাম বাড়ার কারণ হিসেবে তারা বলেন, আন্তর্জাতিক বাজারে তেলের দাম বেশি হওয়ায় দেশীয় বাজারে এর দাম বেড়েছে। আবার এ প্রসঙ্গে অন্যরা বলেছেন, বেশি দামে কেনার কারণে দাম বেড়ে গেছে।
মুরগি বিক্রেতা খাইরুল ইসলাম ও সেলিম বলেন, গত সপ্তাহের তুলনায় প্রায় সকল মুরগির দাম আজ (গতকাল) বেশি। ব্রয়লার ১১৫ থেকে বেড়ে ১২০ টাকা, সাদা লেয়ার ১৪০ থেকে বেড়ে ১৫০ টাকা, দেশী মুরগি ৩২০-৩৩০ থেকে বেড়ে ৩৪০ টাকা, লাল লেয়ার ১৭০ টাকা, প্যারেন্স ১৭০-১৮০ টাকা, সোনালি ১৭০ টাকা, পাকিস্তানি ১৭০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। দাম বাড়ার কারণ হিসেবে তারা জানান, লাভবান না হওয়ায় অনেকেই মুরগির খামার বন্ধ করে দিচ্ছেন। আবার অনেক খামারি অন্য বরের তুলনায় কম মুরগি পালন করছেন। এর ফলে বাজারে আমদানি কমে যাওয়ায় দামও বেশি।
মাছ বিক্রেতা মুকুল রহমান ও জয়নুল আবেদিন বলেন, আজ (গতকাল) বাজারে মাছের আমদানি গত দিনের তুলনায় অর্ধেকেরও কম এবং বড় মাছের দাম কেজিপ্রতি ১০-৩০ টাকা বাড়তি। গত সপ্তাহে এক কেজির ইলিশ ৮০০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হলেও এ সপ্তাহে দাম বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ৮৫০-৯০০ টাকা কেজি দরে। এছাড়া ৭০০ থেকে ৯০০ গ্রামের সিলভারকার্প ১২০ টাকা, ৫০০ গ্রামের মিরকা ১৫০ টাকা, ৮০০-৯০০ গ্রাম ওজনের রুই ২০০ টাকা, তিন কেজি ওজনের কাতল ৩২০ টাকা, দেড় থেকে দুই কেজি ওজনের গ্লাসকার্প ১৬০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।
সবজি বিক্রেতা আব্দুল রশিদ ও শহিদুল ইসলাম বলেন, গত সপ্তাহের তুলনায় কোনো সবজির দাম বাড়েনি। কিছু সবজির দাম কমেছে। নতুন আলু ৩৫-৩০ থেকে কমে ২৫ টাকা, ঘিয়ন বেগুন ৪০ থেকে কমে ৩০ টাকা, সাধারণ বেগুন ২০-২৫ টাকা, পেঁপে ২০ টাকা, কাঁচকলা ৩০ টাকা, ওলকপি ৩০ টাকা, ফুলকপি ২০ থেকে কমে ১৭ টাকা, দেশী শিম ৪৫ থেকে কমে ৪০ টাকা, দেশী করলা ৮০ টাকা, কাবলি মটরশুঁটি ৯০ থেকে কমে ৮০ টাকা, গাজর ৪০ থেকে কমে ৩৫ টাকা, শসার দাম কমে ৩০-৩৫ টাকা, গাছপাকা টমেটো ৬০ থেকে কমে ৫০ টাকা, বিদেশী টমেটো ২৫-৩০ থেকে কমে ২০-২৫ টাকা এবং কাঁচামরিচ ১২০ থেকে কমে বিক্রি হচ্ছে ১০০ টাকা কেজি দরে। এছাড়া বাঁধাকপি ১৫ টাকা কেজি থেকে কমে ১৫ টাকা পিস হিসেবে বিক্রি হচ্ছে।