নোয়াখালীতে সড়ক দুর্ঘটনায় অন্তঃসত্ত্বা নারীসহ নিহত ২

20

নোয়াখালীর চাটখিল উপজেলার রামগঞ্জ-ঢাকা আঞ্চলিক সড়কে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা ও ইটবাহী হ্যান্ডটাক্ট্ররের মধ্যে মুখোমুখি সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে সুলতানা আক্তার (১৯) নামের অন্তঃসত্ত্বা এক গৃহবধূ ও ইদ্রিস মিয়া (৪৫) নামের এক অটোরিকশাচালক নিহত হয়েছেন। ঘটনায় সালেহা আক্তার (৬০) নামের আরো এক নারী আহত হয়েছেন। বুধবার সকাল পৌনে ১০টার দিকে ১১ নম্বর পোলের গোড়া এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।
নিহত সুলতানা আক্তার উপজেলার পূর্ব শোশালিয়া কাঠিয়াবাড়ী এলাকার মোহাম্মদ সোহাগের স্ত্রী এবং ইদ্রিস মিয়া একই এলাকার আবদুল আজিজের ছেলে। আহত সালেহা আক্তার একই এলাকার মনির হোসেনের স্ত্রী।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ৯ মাসের অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূ সুলতানা আক্তার কয়েকদিন আগে শ্বশুরবাড়ি থেকে বাবার বাড়ি ১০ গরিয়ায় বেড়াতে আসেন। বুধবার সকালে মা সালেহা আক্তারকে নিয়ে চাটখিল হাসপাতালের উদ্দেশে একটি ব্যাটারিচালিত অটোরিকশাযোগে বাড়ি থেকে বের হন। অটোরিকশাটি রামগঞ্জ-ঢাকা আঞ্চলিক সড়কের ১১ নম্বর পোলের গোড়া এলাকায় পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা ইটবাহী একটি হ্যান্ডটাক্ট্রর রিকশাটিকে সামনে থেকে ধাক্কা দেয়। এতে রিকশাটি উল্টে সড়কের পাশে ছিটকে পড়লে রিকশায় থাকা সুলতানা ও চালক ইদ্রিস ঘটনাস্থলে নিহত হন। আহত হন গৃহবধূর মা সালেহা আক্তার।
চাটখিল থানার ওসি মো. আনোয়ারুল ইসলাম ঘটনা নিশ্চিত করে জানান, নিহতদের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। চালক পালিয়ে গেলেও ঘটনাস্থল থেকে হ্যান্ডটাক্ট্ররটি আটক করা হয়েছে। আহত সালেহা আক্তারকে উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।