মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস চর্চার আহ্বান ইবিএইউবি উপাচার্যের

30

নিজস্ব প্রতিবেদক : এক্সিম ব্যাংক কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় বাংলাদেশ (ইবিএইউবি)-এর উদ্যোগে মহান বিজয় দিবস উদ্যাপন করা হয়। পতাকা উত্তোলন, পুষ্পস্তবক অর্পণ, ভার্চুয়াল আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে দিবসটি উদযাপন করা হয়। এছাড়া ক্যাম্পাস আলোকসজ্জা করা হয়। সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. এবিএম রাশেদুল হাসান জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন। এরপর উপাচার্যের নেতৃত্বে জেলা প্রশাসকের কার্যালয় সংলগ্ন শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের নাম সংবলিত স্মৃতিফলকে এবং মুক্তমঞ্চে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করার মাধ্যমে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হয়।
সকাল ৯ টায় ভার্চুয়াল আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান শুরু হয়। শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের স্মরণে দাঁড়িয়ে একমিনিট নিরবতা পালন করা হয়। মহান বিজয় দিবস-২০২০ উদ্যাপন কমিটির আহ্বায়ক আইন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান এস এম শহীদুল ইসলামের সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. এবিএম রাশেদুল হাসান। স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন বিশ্ববিদ্যায়ের কৃষি অনুষদের ডীন ও রেজিস্ট্রার (অতিরিক্ত দায়িত্ব) ড. দেলোয়ার হোসেন। এছাড়াও বক্তব্য প্রদান করেন ট্রেজারার (অতিরিক্ত দায়িত্ব) ও পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক শাহরিয়ার কবির ও কৃষি অনুষদের কো-অর্ডিনেটর মিঠুন কুমার ঘোষ।
ভার্চুয়াল আলোচনা সভার প্রধান অতিথি উপাচার্য প্রফেসর ড. এবিএম রাশেদুল হাসান তাঁর বক্তব্যে বলেন- জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে এবং শহীদের আত্মত্যাগের বিনিময়ে আমরা একটি স্বার্ধীন দেশ ও এই লাল সবুজের পতাকা পেয়েছি। সকলে মিলে মুক্তিযুুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ার আহবান জানিয়ে প্রফেসর রাশেদুল হাসান মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণকারী বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীরসহ চাঁপাইনবাবগঞ্জের অন্যান্য ব্যক্তিবর্গের অনবদ্য অবদানের কথা স্মরণ করেন। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস চর্চা করে দেশের উন্নয়নে কাজ করার পরামর্শ দেন। এই বিজয়ের মাসে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতুর বাস্তবায়নকে এক যুগান্তকারী মাইলফলক হিসেবে অভিহিত করেন এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।
শেষে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের পরিবেশনায় বিজয়ের গান, কবিতা ও নৃত্য পরিবেশনের মধ্যে দিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘটে।