টাঙ্গাইলে বাস-ট্রাক সংঘর্ষে নিহত ৬ জন

18

টাঙ্গাইল জেলার মির্জাপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় ৬ জন নিহত ও ৫ জন আহত হয়েছেন। শুক্রবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের মির্জাপুর উপজেলার কুর্ণী এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। দুর্ঘটনার পরে গোড়াই হাইওয়ে পুলিশ এবং ফায়ার সার্ভিসের দল উদ্ধার অভিযানে কাজ করে।
নিহতরা হলেন- ট্রাকের হেলপার রংপুর জেলার পীরগঞ্জ উপজেলার রতন মিয়ার ছেলে চুন্নু মিয়া (৩৪), বাসযাত্রী একই উপজেলার জয়নাল হোসেনের ছেলে আশরাফুল ইসলাম (৩৪), পারভেজ হোসেনের ছেলে সিরাজুল ইসলাম (৩১), ইসহাক মন্ডলের ছেলে হান্নান মন্ডল (৫০), রংপুর সদর উপজেলার নুলু খানের মেয়ে নুরুন নাহার (১৬) এবং ছোবহান খানের ছেলে শওকত হোসেন (১২)।
এ ব্যাপারে গোড়াই হাইওয়ে থানার ওসি মোজাফফর হোসেন জানান, রংপুর থেকে ছেড়ে আসা সেবা ক্লাসিক পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস ঢাকার দিকে যাচ্ছিল। পথিমধ্যে বাসটি মহাসড়কের মির্জাপুর উপজেলার কুর্ণী এলাকায় পৌঁছলে বিকল হয়ে পড়ে। পরে মেরামতের জন্য বাসটি রাস্তার পাশে দাঁড় করানো হয়। এ সময় বেশ কয়েকজন যাত্রীও রাস্তার পাশে দাঁড়িয়েছিল। পরে ঢাকাগামী সবজিভর্তি একটি ট্রাক বাসটিকে পিছন দিক থেকে ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই বাসের চার যাত্রী নিহত হয়। আহতদের উদ্ধার করে মির্জাপুর কুমুদিনী হাসপাতালে নেয়া হলে সেখানে দুজন মারা যায়। এ ঘটনায় অন্তত ৫ জন আহত হয়েছে। তারা বর্তমানে মির্জাপুর কুমুদিনী হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। আহতদের মধ্যে কয়েকজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।
গোড়াই হাইওয়ে থানার ওসি বলেন, দুর্ঘটনা কবলিত বাস এবং ট্রাক দুটি উদ্ধার করা হয়েছে। নিহতদের লাশ হাইওয়ে থানায় রয়েছে। বাস ও ট্রাকের চালক পলাতক রয়েছে। এখন পর্যন্ত থানায় কোনো মামলা হয়নি।