চেষ্টা করেছি মানবিক জেলা প্রশাসন গড়ার : জেলা প্রশাসক এ জেড এম নূরুল হক

41

চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার গণমাধ্যমকর্মীদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করেছেন জেলা প্রশাসক এ জেড এম নূরুল হক। আজ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে এই শুভেচ্ছা বিনিময় সভার আয়োজন করে জেলা প্রশাসন। এ-সময় জেলা প্রশাসক এ জেড এম নূরুল হক বলেন, আমি দুই বছরের বেশি সময় এই জেলার জেলা প্রশাসক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছি। অনেক কিছু করতে পেরেছি আবার অনেক কিছু পারিনি। আমি চেষ্টা করেছি মানবিক জেলা প্রশাসন গড়ার। আমার বিশ্বাস আমি পেরেছি। আমি চেষ্টা করেছি সকলের সহযোগিতায় এই জেলার উন্নয়ন কার্যক্রম এগিয়ে নেয়ার। গতবছরের ডেঙ্গু পরিস্থিতি এবং এই বছরের করোনা ভাইরাস পরিস্থিতিকে আমরা আপনাদের সহযোগিতায় মোকাবেলা করতে পেরেছি। আমি ঘোষণা দিয়েছিলাম, দুই বছরের কাজ একবছরে করব; কিন্তু করোনা পরিস্থিতির কারণে কিছুটা বাধাগ্রস্ত হয়েছি।

ইংলিশ ভার্সন স্কুলটি প্রতিষ্ঠায় সহযোগিতা করার জন্য সাংবাদিকদের প্রতি অনুরোধ জানিয়ে তিনি বলেন- আমি রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোতে বদলি হয়েছি। চেষ্টা করব চাঁপাইনবাবগঞ্জের আম রপ্তানি নিয়ে কাজ করার। আমার এক পা চাঁপাইনবাবগঞ্জে থাকবে।
মতবিনিময় সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) দেবেন্দ্র নাথ উরাঁও, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো. জাকিউল ইসলাম, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. নাজমুল ইসলাম সরকারসহ জেলা প্রশাসনের অন্য কর্মকর্তাবৃন্দ।
এ সময় ডেঙ্গু ও করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলা, শিক্ষা ক্ষেত্রে অবদান, ভর্তি বাণিজ্য বন্ধ, দরিদ্র মানুষদের পাশে থাকা, বিভিন্ন প্রকাশনাসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে জেলা প্রশাসকের বিশেষ অবদানের কথা তুলে ধরেন সাংবাদিকরা।
শুভেচ্ছা বিনিময় সভায় সাংবাদিক নেতাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সভাপতি মাহবুবুল আলম ও সাধারণ সম্পাদক শহীদুল হুদা অলক, চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রেস ক্লাবের সভাপতি জাফরুল আলম ও সাধারণ সম্পাদক রফিকুল আলম, সিটি প্রেস ক্লাব, চাঁপাইনবাবগঞ্জের সভাপতি সাজেদুল হক সাজু, স্বাধীন প্রেস ক্লাবের সভাপতি ফারুক আহমেদ চৌধুরী, মডেল প্রেস ক্লাবের সভাপতি আখতারুজ্জামান ও সাধারণ সম্পাদক জারিফ হোসেন। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন প্রবীণ সাংবাদিক ডিএম তালেবুন নবী, মুক্তিযোদ্ধা মো. তসলিম উদ্দিন, শামসুল ইসলাম টুকু, গোলাম মোস্তাফা মন্টু, এমরান ফারুক মাসুমসহ প্রবীণ ও নবীন সংবাদিকরা।
শেষে চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রেসক্লাবের পক্ষ থেকে বই উপহার দেওয়া হয়।