ভোলাহাটে দখলমুক্ত হলো ৮ কিলোমিটার খাল

26

চাঁপাইনবাবগঞ্জের ভোলাহাট উপজেলায় অবৈধ দখলে থাকা পয়ঃনিষ্কাশনের ৮ কিলোমিটার সরকারি খাল মুক্ত করা হয়েছে। এছাড়া উচ্ছেদ করা হয়েছে উপজেলার বিভিন্ন অবৈধ স্থাপনা। এসব অভিযানে নেতৃত্ব দেন ভোলাহাট উপজেলা নির্বাহী অফিসার মশিউর রহমান।
জানা যায়, এই উপজেলার ওপর দিয়ে প্রবাহিত মহানন্দা নদী হয়ে বজরাটেক, হলিদাগাছী, ইমামনগর, বীরেশ^রপুর, সুরানপুর গ্রামসহ সিংহ ভাগ অঞ্চলের জমে থাকা পানি এ খাল দিয়ে বিলভাতিয়ায় নিষ্কাশন হতো। কিন্তু সরকারি এ খালটি বেদখল হওয়ায় পয়ঃনিষ্কাশন বন্ধ হয়ে যায়। ফলে রাস্তাসহ বাড়িতে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়ে চরম দুর্ভোগের শিকার হতে হতো এলাকাবাসীকে।
এর আগে ১৯৯৩-৯৪ অর্থবছরে এ খালটি সংস্কারের জন্য তৎকালীন গোহালবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল হান্নান ও ভোলাহাট ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান চারটি প্রকল্পে প্রায় ৬০০ মেট্রিক টন গম বরাদ্দ নিয়ে সংস্কার করেন।
এদিকে খালটি দখলমুক্ত হওয়ায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার মশিউর রহমানকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন গোহালবাড়ী ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আলাউদ্দিন ও বর্তমান চেয়ারম্যান আব্দুল কাদের।
খালটি দখলমুক্ত হওয়া ছাড়াও উপজেলার মেডিকেল মোড়, বড়গাছীবাজার, মুশরীভূজা বাজার, ময়ামারী বাজার, গোহালবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদ গেট বাজার, ইমামনগর বাজার, ফুটানীবাজারসহ বিভিন্ন স্থানে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করে রাস্তা প্রশস্তসহ সৌন্দর্য বৃদ্ধি করা হয়েছে।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার মশিউর রহমান জানান, সরকারি জায়গায় কোনো অবৈধ স্থাপনা থাকবে না। এ উচ্ছেদ অভিযান চলমান থাকবে বলে জানান তিনি।