পেঁয়াজের পাশাপাশি বেড়ে গেছে চালের দামও

34

বিপাশা রবি দাস

চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার নিউমার্কেট ও পুরাতন বাজারে পেঁয়াজের সঙ্গে সঙ্গে অন্যান্য নিত্যপ্রয়োজনী পণ্যের দামও বেড়ে গেছে। শুক্রবার এই দুই বাজার ঘুরে দাম বৃদ্ধির তথ্য জানা গেছে। বাজারে পেঁয়াজের দাম কমার কোনো লক্ষণই নেই। বরং বেড়ে এ সপ্তাহে বিদেশী পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৮০-৮৫ টাকা কেজি দরে। আর দেশী পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৯০-৯৫ টাকা। বাজারে নিত্যপ্রয়োজনীয় চালের দামও গত সপ্তাহের তুলনায় বেড়েছে। আমদানি কম থাকায় বেড়েছে সবজি ও মাছের দাম। আর পণ্যের দাম বাড়ায় চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন নিম্ন আয়ের মানুষ।

নিউমার্কেট বাজারে মুদি পণ্য বিক্রেতারা জানান, গত তিন দিন থেকে বিদেশী পেঁয়াজ পাইকারি বাজারে বিক্রি হচ্ছে ৮০ টাকা কেজি এবং আমরা বিক্রি করছি ৮৫ টাকায়। আর দেশী পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৯০-৯৫ টাকা। তারা আরো জানান, পেঁয়াজের দামের পাশাপাশি চালের দামও বেড়ে গেছে। বর্তমানে আটাশ চাল ৫০ টাকা, বাছাই আটাশ ৫২ টাকা, মিনিকেট চাল ৫২ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। আর নতুন আদার দাম বেড়ে হয়েছে ১৬০ টাকা কেজি। পুরাতন আদা বিক্রি হচ্ছে ১৩০ টাকা কেজি।
এদিকে পুরাতন বাজারের আড়তদাররা জানিয়েছেন, ভারতীয় পেঁয়াজ না আসার কারণে এর দাম বেড়ে গেছে। ভারতীয় পেঁয়াজ না এলে দাম আরো বেড়ে যাতে পারে বলে জানান তারা।
বাজারে সবজি বিক্রেতা আব্দুল রশিদ ও আফগার বলেন, গত সপ্তাহের তুলনায় প্রায় সকল সবজির দাম বেড়েছে। আলু ৩৫ টাকা, ঢেঁড়শ ৪০ থেকে বেড়ে ৫০ টাকা, পটল ৩০ থেকে বেড়ে ৩৫ টাকা, ঝিঙ্গা ৩৫ থেকে বেড়ে ৪০ টাকা, ছিছিন্দা ৩৫-৪০ টাকা, বেগুন ৫০ থেকে বেড়ে ৬০ টাকা, করোলা ৬০ থেকে বেড়ে ৭০ টাকা, কচু ৪০ টাকা, শসা ৮০ টাকা, গাজর ১০০ টাকা, কাঁচকলা ৪০ টাকা, বরবট্টি ৭০ টাকা আর কাকরোল বিক্রি হচ্ছে ৫০ টাকা কেজি দরে। দাম বাড়ার কারণ হিসেবে তারা বলেন, আমদানি কম হওয়ায় দাম বেড়েছে। ৫০ মণের জায়গায় পাওয়া যাচ্ছে ২৫ মণ। যে কারণে সবজির দাম বেড়ে চলেছে।
মাছ বিক্রেতা মুমুতাজুল আলী ও কুতুব মিঞা বলেন, আজ  বাজারে মাছের আমদানি কম হওয়ায় পুকুরের মাছের দাম ২০ থেকে ৪০ আর নদীর মাছের দাম কেজিপ্রতি ২০ থেকে ১০০ টাকা বাড়তি।
তবে অন্যান্য পণ্যের তুলনায় বাজারে কমেছে মুরগির দাম। বিক্রেতা শামিম ও সাদিকুল বলেন, গত সপ্তাহের তুলনায় মুরগির দাম কমেছে। বাজারে দেশী মুরগি ৩০০ টাকা, পাকিস্তানি ১৯০ টাকা, প্যারেন্স ১৭০ টাকা, লাল লেয়ার ১৮০ টাকা এবং ব্রয়লার ১১৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।
এদিকে ক্রেতারা বলছেন, বাজারে সব ধরনের পণ্যের দাম বেড়ে যাওয়ায় নিম্ন আয়ের মানুষরা চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন। ক্রেতা কাউসার আলী ও রাব্বির হেসেন বলেন, পেঁয়াজের পাশাপাশি সবজিরও দাম বেড়ে গেছে। চালেও দাম বেড়েছে। সব পণ্যেরই দাম বেড়ে গেছে। কোনো জিনিসে হাত দেয়া যায় না। তারা বলেন, পণ্যের দাম বাড়লেও আয় তো বাড়ছে না। আর এই আয় দিয়ে প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র কেনাটাও এখন কষ্টকর হয়ে পড়েছে।