প্লাজমা দিতে ঢাকা গেলেন জেলা পুলিশের ১৩ সদস্য

47

মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণসহ দেশের প্রতিটি দুর্যোগ ও মহামারিতে সর্বদা মানুষের পাশে থেকেছে বাংলাদেশ পুলিশ। চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা পুলিশও এবার করোনাকালীন জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কাজ করে সুনাম অর্জন করেছে। করোনা পরিস্থিতি শুরু হওয়ার পর রাস্তায় চেকপোস্ট বসিয়ে বাইরের জেলা থেকে আগতদের একত্রে করে ডাক্তার দিয়ে স্ক্রিনিং করিয়ে হোম কোয়ারেন্টাইনের ব্যবস্থা করেছে। দিন-রাত কঠোর পরিশ্রম করে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ এড়াতে নিরলস কাজ করেছেন জেলা পুলিশের দায়িত্বপ্রাপ্ত সদস্যরা।
সবকিছু বন্ধের সময় তারা বহু মানুষের বাড়ি বাড়ি গিয়ে খাদ্যসামগ্রীও বিতরণ করেন। পাশাপাশি আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখা, মাদক উদ্ধারসহ পুলিশের ওপর অর্পিত দায়িত্বগুলোও পালন করেন তারা। আর এসব করতে গিয়ে পর্যায়ক্রমে জেলা পুলিশের ২০ জন সদস্য করোনায় আক্রন্ত হন এবং মহামারি এই ভাইরাসের সঙ্গে যুদ্ধ করে জয়ী হয়ে তারা আবার কর্মস্থলে ফেরেন।
আর এবার এগিয়ে এলেন প্লাজমা দানে। করোনা আক্রান্ত ২০ জনের মধ্যে ১৩ পুলিশ সদস্য প্লাজমা দিতে  সোমবার ঢাকা গেছেন। ঢাকার রাজারবাগ পুলিশ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন করোনা রোগীদের প্লাজমা দানের জন্য তাদের পাঠানো হয়েছে।
জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মোহাম্মদ মাহবুব আলম খান জানান, পুলিশ সুপার এএইচএম আবদুর রকিব মহোদয়ের নির্দেশনায় রাজারবাগ পুলিশ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন করোনা রোগীদের প্লাজমা দিতে চাঁপাইনবাবগঞ্জের করোনা জয়ী ১৩ পুলিশ সদস্যকে আজ  সোমবার বাসযোগে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।