দুই ম্যাচের জন্য নিষিদ্ধ নেইমার

10

মার্সেইর বিপক্ষে পরাজিত হওয়া ম্যাচে লাল কার্ড পাওয়ার পর দুই ম্যাচের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছেন প্যারিস সেন্ট জার্মেই’র (পিএসজি) ব্রাজিলীয় সুপার স্টার নেইমার। বুধবার তার বিরুদ্ধে এই নিষেধাজ্ঞার আদেশ জারি করেছে ফ্রেঞ্চ লীগ। একই সঙ্গে ঐ ম্যাচে বিশে^র সবচেয়ে দামী ফুটবলারের সঙ্গে আলভারো গঞ্জালেজের বর্নবাদী আচরণের যে অভিযোগ উঠেছে তা তদন্তের সিদ্ধান্ত নিয়েছে ফরাসি লীগের নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি। এদিকে পিএসজির আরেক তারকা এ্যাঞ্জেল ডি মারিয়ার বিরুদ্ধে সমন জারী করেছে লীগের ডিসিপ্লিনারী কমিশন। আগামী ২৩ সেপ্টেম্বর তাকে কমিশনের সামনে হাজির হওয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

১-০ গোলে পিএসজির হেরে যাওয়া ম্যাচে মার্সেই ডিফেন্ডার গঞ্জালেজের দিকে ওই মারিয়া থুথু ছিটিয়েছে বলে অভিযোগ রয়েছে। যে কারণে তাকে সমন জারি করা হয়। গত রেববারের ওই ম্যাচে দুই দলের ৫জন ফুটবলারকে লাল কার্ড দেখিয়েছেন কর্তব্যরত রেফারি। ম্যাচে গঞ্জালেজের মাথায় চড় মারার দায়ে লাল কার্ড দেখে বিদায় নিতে হয় নেইমারকে। অপরদিকে নেইমারের দাবী স্প্যানিশ ওই ফুটবলার তাকে ‘বানর’ সম্বোধন করে বর্নবাদী আচরণ করেছেন। আবশ্য অভিযোগটি অস্বীকার করেছেন গঞ্জালেজ। ডিসিপ্লিনারী কমিশনের সভাপতি সেবাস্তিয়ান ডেনিক্স বলেন,‘ আমরা জানি ওই সময় বাক্য বিনিময় হয়েছে।

তবে এই মুহুর্তে ওই খেলোয়াড়কে ডেকে পাঠানোর মত পর্যাপ্ত প্রমান হাতে নেই।’ তদন্তের সময় ভিডিও ফুটেজ বিশ্লেষন করা হবে জানিয়ে তিনি বলেন, যার মাধ্যমে বর্নবাদী আচরণের নিশ্চিত প্রমান বের করার চেস্টা করা হবে। তিনি বলেন, তদন্তের সময় চেস্টা করা হবে আসলে কি বলা হয়েছে এবং কি শুনা গেছে। মুল কথা হল সঠিক প্রমানাদি খোঁজার চেস্টা করা হবে। কমিশন স্পষ্ট উপাদানগুলোর উপরই বেশী নির্ভর করবে।

স্প্যানিশ মিডিয়া জানিয়েছে গঞ্জালেজকে নেইমার ‘সমকামী’ মন্তব্য করেছিলেন কিনা সেটিও তদন্ত করে দেখা হবে। ওই ম্যাচে মর্সেই’র লেফট ব্যাক জর্ডান আমাভিকে লাথি মারার অভিযোগে ছয় ম্যাচের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছেন পিএসজি ডিফেন্ডার লেভিন কুরজাওয়া। আর্জেন্টাইন ডারিও বেনেডেটোর সঙ্গে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়ে লাল কার্ড পাওয়া আরেক ফুটবলার লিয়ান্দ্রো পারেদসকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে দুই ম্যাচের জন্য।