বর্ণবাদী আচরণের অভিযোগ তুলেছেন পিএসজি তারকা নেইমার

3

উত্তপ্ত লড়াইয়ের রেশ কাটছে না ম্যাচ শেষেও। মার্সেইয়ের আলভারো গনসালেসের বিরুদ্ধে বর্ণবাদী আচরণের অভিযোগ তুলেছেন পিএসজির তারকা ফরোয়ার্ড নেইমার। কোভিড-১৯ থেকে সেরে উঠে মার্সেইয়ের বিপক্ষে মাঠে ফেরাটা সুখকর হয়নি নেইমারের। মার্সেইয়ের বিপক্ষে দলের ১-০ গোলে হারের ম্যাচে দেখেন লাল কার্ডও। ম্যাচের শেষ দিকে লেয়ান্দ্রো দানিয়েল পারেদেসের এক ফাউলকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের মধ্যে তুলকালাম বেঁধে যায়। হাতাহাতি, ধাক্কাধাক্কির একপর্যায়ে গনসালেসের মাথার পেছনে হাত দিয়ে আঘাত করতে দেখা যায় নেইমারকে। ওই ঘটনায় বহিষ্কার হন পিএসজির নেইমার, লেভিন কুরজাওয়া ও পারেদেস এবং মার্সেইয়ের জর্ডান আমাভি ও দারিও বেনেদেত্তো। মাঠ ছেড়ে বেরিয়ে আসার সময় ক্যামেরার দিকে তাকিয়ে নেইমারকে কিছু একটা বলতে শোনা যায়। পরে টুইটারে ক্ষোভ উগরে দেন নেইমার। গনসালের বিপক্ষে তোলেন বর্ণবাদী আচরণের অভিযোগ। “আমার একটাই দুঃখ, বদমায়েশটার মুখে মারতে না পারা।” পরে আরেক পোস্টে গনসালেসের আচরণও সবার সামনে তুলে ধরার দাবি করেন নেইমার। “আমাকে শাস্তি দেওয়া হয়েছে। ভিএআরে আমার আচরণ ধরতে পেরেছে এবং আমি চ্যালেঞ্জ করছি, আলভারোর বর্ণবাদী মন্তব্যও তুলে ধরা হোক।” যার বিরুদ্ধে অভিযোগ, সেই গনসালেস অবশ্য অস্বীকার করেছেন। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে তিনি লিখেছেন, “বর্ণবাদের কোনো স্থান নেই।” প্রতিপক্ষ মার্সেই কোচ আন্দ্রে ভিয়াস-বোয়াসের বিশ্বাস হতাশা থেকেই নেইমার এই অভিযোগ করেছেন। “আমি মনে করি না এটা (বর্ণবাদী আচরণ) হয়েছে। কেননা, আলভারো অভিজ্ঞ খেলোয়াড়। ফুটবলে বর্ণবাদের কোনো স্থান নেই।” “ম্যাচের শেষ দিকের পরিস্থিতির কারণে নেইমার কিছুটা বিরক্ত ছিল। আমি আশা করি, অভিযোগের কারণে এই জয় থেকে মনোযোগ সরে যাবে না।”