করোনায় প্রাণ গেল শিবগঞ্জের সন্তান এসআই সুমনের

62

শিবগঞ্জ প্রতিনিধি : করোনার সঙ্গে লড়াই করে শেষ পর্যন্ত হার মানলেন চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার সন্তান সুমন আলী (৩৮)। তিনি শিবগঞ্জ পৌর এলাকার দৌলতপুর কদমতলা গ্রামের আব্দুল লতিফের বড় সন্তান এবং বিবাহিত জীবনে তিনি এক কন্যাসন্তানের জনক ছিলেন। মৃত সুমন নাটোর জেলার বড়াইগ্রাম থানায় পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) হিসেবে কর্মরত ছিলেন।
বনপাড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ তৌহিদুল ইসলাম তুহিন জানান, সুমন আলীর করোনা পরীক্ষার ফলাফল প্রথমে নেগেটিভ এলেও তার মধ্যে উপসর্গ থাকায় এবং শারীরিক অবস্থা খারাপ হলে ২ আগস্ট রাজারবাগ কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালে তাকে ভর্তি করা হয়। সেখানে তার শরীরে করোনা ধরা পড়ে। অবস্থার অবনতি হলে তাকে আইসিইউতে স্থানান্তরিত করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শুক্রবার ভোরে সুমন মারা যান।
এদিকে করোনায় সুমনের মৃত্যুতে শিবগঞ্জের কদমতলায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। মৃতদেহ গতকাল শুক্রবার বিকেলে আসার পর আশপাশের পরিবেশ কান্নায় ভারী হয়ে ওঠে। স্বাস্থ্য বিধি মেনে জানাজা শেষে তাকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে।
এর আগে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে মৃত কর্মকর্তার প্রতি শ্রদ্ধা জানান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাহবুবুল আলম খান। এ সময় শিবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাকিব-আল-রাব্বি, শিবগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ শামসুল আলম শাহ উপস্থিত ছিলেন। পরে পুলিশের একটি দল গার্ড অব অনার প্রদান করে।
উল্লেখ্য, সুমন আলী ২০০৮ সালের ২৪ সেপ্টেম্বর এসআই (নিরস্ত্র) হিসেবে বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীতে যোগদান করেন ।