দেশে করোনায় আরো ৫০ জনের মৃত্যু, আক্রান্ত ১৯১৮

10

দেশে দীর্ঘতর হচ্ছে করোনা ভাইরাসে (কোভিড-১৯) মৃত্যুর তালিকা। গত ২৪ ঘণ্টায় এ তালিকায় যুক্ত হয়েছে আরো ৫০ জনের নাম। ফলে ভাইরাসটিতে মৃতের সংখ্যা এখন ৩ হাজার ২৩৪ জন। এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় এ ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে আরো ১ হাজার ৯১৮ জনের মধ্যে। এ নিয়ে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল ২ লাখ ৪৪ হাজার ২০ জনে। মঙ্গলবার (৪ আগস্ট) দুপুরে করোনা ভাইরাস বিষয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের দৈনন্দিন বুলেটিনে এ তথ্য জানান অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা।
ডা. নাসিমা জানান, করোনা ভাইরাস শনাক্তে গত ২৪ ঘণ্টায় আরো ৮ হাজার ১২৩টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়। পরীক্ষা করা হয় আগের কিছু মিলিয়ে ৭ হাজার ৭১২টি নমুনা। এ নিয়ে দেশে মোট নমুনা পরীক্ষা করা হলো ১২ লাখ ১ হাজার ২৫৬টি। নতুন নমুনা পরীক্ষায় করোনা শনাক্ত হয়েছে আরো ১ হাজার ৯১৮ জনের দেহে। ফলে শনাক্ত করোনা রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল ২ লাখ ৪৪ হাজার ২০ জনে। ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ২৪ দশমিক ৮৭ শতাংশ। এ পর্যন্ত শনাক্তের হার ২০ দশমিক ৩১ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন আরো ১ হাজার ৯৫৫ জন। এতে সুস্থ হয়ে ওঠা রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল ১ লাখ ৩৯ হাজার ৮৬০ জনে। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৫৭ দশমিক ৩১ শতাংশ।
তিনি জানান, আক্রান্তদের মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে আরো ৫০ জনের। এ পর্যন্ত মোট মারা গেছেন ৩ হাজার ২৩৪ জন। শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৩৩ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় যারা মারা গেছেন তাদের মধ্যে পুরুষ ৪৪ জন এবং নারী ৬ জন। এদের মধ্যে ত্রিশোর্ধ্ব ৩ জন, চল্লিশোর্ধ্ব ৬ জন, পঞ্চাশোর্ধ্ব ১৭ জন, ষাটোর্ধ্ব ১৮ জন, সত্তরোর্ধ্ব ৫ এবং ৮০ বছরের বেশি বয়সী একজন রয়েছেন। বিভাগওয়ারী পরিসংখ্যান অনুসারে, গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যুবরণকারী ৫০ জনের মধ্যে ২৯ জন ঢাকা বিভাগের, ৫ জন চট্টগ্রাম বিভাগের, ৪ জন রাজশাহী বিভাগের, ৫ জন খুলনা বিভাগের, সিলেটে একজন, বরিশাল বিভাগের একজন, ৪ জন রংপুর বিভাগের ও ময়মনসিংহ বিভাগের একজন রয়েছেন।