আক্রান্তের সংখ্যায় স্পেনকে টপকে পাঁচে উঠে এলো ভারত

21

মাত্র একদিনের ব্যবধানেই করোনাভাইরাসে বিশ্বের সর্বোচ্চ আক্রান্ত দেশের তালিকায় ছয় থেকে পাঁচ নম্বরে উঠে এলো ভারত। গত শুক্রবার তারা ইতালিকে ছাড়িয়ে ছয়ে উঠেছিল। শনিবার ছাড়িয়ে গেছে স্পেনকেও। যুক্তরাষ্ট্রের জনস হপকিন্স ইউনিভার্সিটির তথ্যমতে, ভারতে এ পর্যন্ত মোট করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২ লাখ ৪৬ হাজার ৬২২ জন। স্পেনে আক্রান্ত ২ লাখ ৪১ হাজার ৩১০ জন। আক্রান্তের হিসাবে এখন ভারতের ওপরে রয়েছে শুধু যুক্তরাষ্ট্র, ব্রাজিল, রাশিয়া ও যুক্তরাজ্য। সংক্রমণ হু হু করে বাড়লেও কিছুটা আশার কথা, তালিকার অনেক দেশের তুলনায় ভারতে মৃত্যুহার কিছুটা কম। যেমন- ইতালিতে মারা গেছেন ৩৩ হাজারের বেশি, স্পেনে ২৭ হাজার, ব্রাজিলে ২৫ হাজার, যুক্তরাজ্যে ৪০ হাজার আর যুক্তরাষ্ট্রে মৃত্যুর ঘটনা এক লাখেরও বেশি। সেই তুলনায় ভারতে এ পর্যন্ত মারা গেছেন সাড়ে ছয় হাজারের মতো। এর মধ্যে শনিবার প্রাণ হারিয়েছেন ২৯৪ জন। শনিবার ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছিল, দেশটিতে নতুন করে ৯ হাজার ৮৮৭ জনের শরীরে করোনাভাইরাস ধরা পড়েছে, যা এখন পর্যন্ত একদিনে সর্বোচ্চ আক্রান্তের রেকর্ড। ভারতে করোনা সংক্রমণের কেন্দ্রে রয়েছে মহারাষ্ট্র, গুজরাট, তামিলনাডু ও দিল্লি ৷ সরকারি হিসাবে মহারাষ্ট্রে আক্রান্ত হয়েছেন ৮০ হাজারের বেশি, তামিলনাড়ুতে ২৮ হাজার, দিল্লিতে ২৬ হাজার ও গুজরাটে আক্রান্ত ১৯ হাজার মানুষ। ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সূত্র বলছে, গত ১ মে থেকে দেশটিতে দ্রুত বাড়ছে করোনার সংক্রমণ। ওই দিন থেকেই অভিবাসী শ্রমিকদের বিভিন্ন রাজ্য থেকে তাদের গন্তব্যে পৌঁছাতে শ্রমিক স্পেশাল ট্রেন চালু হয়েছিল। ধারণা করা হচ্ছে, ঘরে ফেরা এসব অভিবাসী শ্রমিকদের মাধ্যমেই সেখানে ভাইরাসটি দ্রুত ছড়িয়ে পড়েছে।