লটারিতে নির্বাচিত কৃষকের তালিকা ইউনিয়ন অফিসের তথ্য কেন্দ্রে টানিয়ে দেয়ার নির্দেশ খাদ্যমন্ত্রীর

54

খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেছেন, চলতি বোরো মৌসুমে যেসব কৃষক বোরো চাষ করেছেন এমন প্রকৃত কৃষকের মধ্য থেকে লটারির মাধ্যমে কৃষক নির্বাচন করতে হবে।
তিনি বলেন, ‘লটারি করার পর চূড়ান্তভাবে নির্বাচিত কৃষকের নামের তালিকা ইউনিয়ন অফিসের তথ্য কেন্দ্রে ঝুলিয়ে রাখতে হবে; যাতে সবাই দেখতে পায়। এসব কাজ অত্যন্ত স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতার মধ্যে দিয়ে করতে হবে।’
খাদ্যমন্ত্রী বুধবার (১৩ মে) মন্ত্রীর মিন্টো রোডস্থ সরকারি বাসভবন থেকে ঢাকা বিভাগের সাথে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এসব কথা বলেন।
ভিডিও কনফারেন্সে ঢাকা বিভাগের আওতাধীন প্রতিটি জেলার করোনা মোকাবেলা পরিস্থিতি, চলতি বোরো ধান কাটা-মাড়াই, সরকারিভাবে ধান চাল সংগ্রহসহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন মন্ত্রী।
সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেন, ধান-চাল সংগ্রহের ক্ষেত্রে প্রতিটি উপজেলায় সংগ্রহ কমিটি রয়েছে। সংগ্রহ কমিটি প্রতিটি ইউনিয়নে গিয়ে কৃষকের উপস্থিতিতে লটারি করবেন।
ঢাকা বিভাগের মাঠপর্যায়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, কৃষকের স্বার্থের কথা চিন্তা করে তাদের ন্যায্যমূল্য নিশ্চিত করতে ধান-চাল কেনার ক্ষেত্রে ধানকে অগ্রাধিকার দিতে হবে এবং কৃষক যেন কোনোভাবেই হয়রানির শিকার না হয় সেদিকেও লক্ষ্য রাখতে হবে।
ভিডিও কনফারেন্সে খাদ্য সচিব ড. মোছাম্মৎ নাজমানারা খানুম যুক্ত ছিলেন।