চাঁপাইনবাবগঞ্জেচাল নিয়ে চালবাজী না করে সরবরাহ বজায় রাখার আহ্নবান জেলা প্রশাসকের

160

 চাঁপাইনবাবগঞ্জে শনিবার (২৮ মার্চ) রাইস মিল মালিকদের নিয়ে জরুরি সভা করেছেন জেলা প্রশাসক এ জেড এম নূরুল হক। বাজারে চালের সরবরাহ নিশ্চিত করতেই এই সভার আয়োজন করা হয়। দুপুরে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত সভায় মিল মালিকদের জেলাপ্রশাসক বলেন, দেশের করোনা পরিস্থিতিকে কেন্দ্র করে চাল নিয়ে চালবাজী না করে চালের সরবরাহ বজায় রাখুন। তিনি আরো বলেন-যারা মিল মালিক না হয়েও মাসের পর মাস ধান চাল মজুদ করে রেখেছে তাদের বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান অব্যাহত থাকবে। প্রয়োজনে আইন অনুযায়ী তাদের মজুদ বাতিল করা হবে।
জেলা প্রশাসকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় উপস্থিত ছিলেন-পৌর মেয়র মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক এ.কে.এম. তাজকির-উজ-জামান, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আলমগীর হোসেন, ভারপ্রাপ্ত জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক ওবায়দুল ইসলাম, সদর থানার অফিসার ইনচার্জ জিয়াউর রহমান, জেলা মিল মালিক ও আতপ ধান চাল ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি এবং হক অটো রাইস মিলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. মোজাম্মেল হক, জেলা রাইস মিল মালিক সমিতির সভাপতি ও চেম্বার সভাপতি এবং এরফান গ্রæপের চেয়ারম্যান মো. এরফান আলী, জেলা রাইস মিল মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মনসুর আলী, নবাব ফুড মিলসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আকবর হোসেন, জোসনারা অটো রাইস মিলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোখলেসুর রহমান, বাশরী অটো রাইস মিলের সামিউল হক লিটন, তাহমিদ অটো রাইস মিলের পরিচালক তসিকুল ইসলামসহ অন্যান্য রাইস মিল মালিকরা।
করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে বাজারে চালের ঘাটতি যেন না হয় সেজন্য জরুরি এই সভা আহবান করা হয়। প্রসঙ্গত, গত ২০ মার্চ চালের বাজার স্থিতিশীল রাখতে রাইস মিল মালিকদের নিয়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলা প্রশাসন এক জরুরি সভা করে। ওই সভার সিদ্ধান্ত মোতাবেক ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে কয়েকজন মজুতদারকে জরিমানা করা হয়।