বিদেশ থেকে আসা ফোনকলের খরচ কমলো

বিদেশ থেকে আসা ফোনকলের খরচ (আন্তর্জাতিক কল টার্মিনেশন রেট) উল্লেখযোগ্য হারে কমিয়েছে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)। সংস্থাটির নতুন সিদ্ধান্ত অনুযায়ী এখন থেকে সর্বনিম্ন কল টার্মিনেশন রেট হবে ৫১ পয়সা প্রতি মিনিট (ডলারের মূল্য ৮৫ টাকা ধরে), যা আগে দেড় টাকার মতো ছিল। বিটিআরসির এ সিদ্ধান্তের ফলে বিদেশ থেকে বাংলাদেশে ভয়েস কল করার খরচ কমে যাবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তবে এ বিষয়টি নির্ভর করবে ইন্টারন্যাশনাল গেটওয়ে (আইজিডবিøউ) অপারেটরদের সিদ্ধান্তের ওপর।জানা গেছে, গত বৃহস্পতিবার ইনকামিং কল টার্মিনেশন রেট পুনর্নির্ধারণ করে আইজিডবিøউ অপারেটরস ফোরাম (আইওএফ)সহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে চিঠি দেয় বিটিআরসি।সংস্থাটির উপ-পরিচালক (সিস্টেমস অ্যান্ড সার্ভিসেস বিভাগ) সাবিনা ইসলামের সই করা চিঠিতে বলা হয়, এখন থেকে ফ্লোর রেটের (যে দরে কল আনা হয়) ভিত্তিতে রাজস্ব ভাগাভাগি হবে।এ চিঠি পাওয়ার কথা স্বীকার করে আইজিডবিøউ প্রতিষ্ঠান ডিজিকনের একজন দায়িত্বশীল কর্মকর্তা বাংলা ট্রিবিউনকে জানান, ১৪ ফেব্রুয়ারি থেকে নতুন রেট কার্যকর হয়েছে। ইনকামিং কলরেট  এখন প্রতি মিনিট ০৬ সেন্ট বা ৫১ পয়সা যা আগের কল রেটের মাত্র এক তৃতীয়াংশ।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, ওটিটি সার্ভিস (ওভার দ্য টপ) সেবা যেমন, ভাইবার, হোয়াটসঅ্যাপ, ইমো, মেসেঞ্জারের সঙ্গে প্রতিযোগিতায টিকে থাকতে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়ে থাকতে পারে।

প্রসঙ্গত: বৈধপথে কল করার খরচ বেশি হওয়ায় অনেকেই অবৈধ ভিওআইপিতে কথা বলতেন বলে সরকার রাজস্ব পেতো কম। তবে এখন শুধুমাত্র ইন্টারনেট চালিয়েই হোয়াটস অ্যাপ, মেসেঞ্জার, ইমো-র মতো অ্যাপ দিয়ে বাড়তি খরচ ছাড়াই কথা বলতে পারেন দেশ-বিদেশের গ্রাহকরা। ফলে দাম তিন ভাগের একভাগে নামিয়ে আনা হলেও বৈধ চ্যানেলে বিদেশ থেকে কলের পরিমাণ কতটা বাড়ে তা এখন দেখার বিষয়। সূত্র-বাংলা ট্রিবিউন।