অলিম্পিকে খেলার সিদ্ধান্ত সালাহ ও লিভারপুলের ওপর

টোকিও অলিম্পিকে খেলার জন্য মোহামেদ সালাহকে জোর করবেন না বলে জানিয়েছেন মিশরের কোচ শাওকি গারিব। সিদ্ধান্তটা এই ফরোয়ার্ড ও তার ক্লাব লিভারপুলের ওপর ছেড়ে দিয়েছেন তিনি।
মূলত অনূর্ধ্ব-২৩ দল এই প্রতিযোগিতায় অংশ নিলেও এর বেশি বয়সী তিন জনকে নেওয়ার সুযোগ থাকে। ২৭ বছর বয়সী সালাহকে ৫০ সদস্যের প্রাথমিক দলে রেখেছে মিশর। এবারের অলিম্পিকে ফুটবল ইভেন্টের ফাইনাল হবে আগামী ৮ অগাস্ট। সেদিনই শুরু হবে প্রিমিয়ার লিগের ২০২০-২১ মৌসুম। জাতীয় দলের হয়ে অলিম্পিকে খেলতে গেলে সালাহকে মৌসুমের শুরুর দিকে পাবে না লিভারপুল। ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফিফা আগেই জানিয়েছে, টোকিও অলিম্পিকের জন্য ২৩ এর বেশি বয়সী খেলোয়াড় ছাড়তে বাধ্য নয় ক্লাবগুলো। বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে মিশরের কোচ জানান, তিনি তাকিয়ে থাকবেন সালাহ ও লিভারপুলের দিকে। “আমাদের সঙ্গে খেলতে সালাহকে জোর করতে পারি না আমরা। মিশর দলের হয়ে সালাহর অংশগ্রহণের সিদ্ধান্ত নেবে কেবল সে, তার ক্লাব লিভারপুল ও কোচ ইয়ুর্গেন ক্লপ।” জুনে ১৮ সদস্যের চূড়ান্ত দল জমা দিবেন বলে জানান গারিব।