মুশফিকের প্রশংসায় ফ্রাইলিঙ্ক

4

বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) টি-২০ ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ৩৭তম ম্যাচে কুমিল্লা ওয়ারিয়র্সের বিপক্ষে খুলনা টাইগার্সের গুরুত্বপূর্ণ জয়ে প্রধান ভূমিকা রাখেন দক্ষিণ আফ্রিকার ৩৫ বছর বয়সী পেসার রবি ফ্রাইলিঙ্ক। বল হাতে ১৬ রানে ৫ উইকেট নেন তিনি। তার নৈপুণ্যে কুমিল্লাকে ৩৪ রানে হারায় খুলনা। দলের জয়ে অবদান রাখতে পেরে উচ্ছ্বসিত ফ্রাইলিঙ্ক। ম্যাচ শেষে দলের অধিনায়ক মুশফিকুর রহিমের প্রশংসাও করলেন তিনি। মুশফিকের প্রশংসা করে ফ্রাইলিঙ্ক বলেন, ‘আমি গতবছরও চিটাগাং ভাইকিংসে মুশফিকের সাথে খেলেছি। আমি তাকে ভালোভাবে চিনি। আমি জানি তিনি কেমন খেলোয়াড়। তার জানাশোনা খুব ভালো। তার ট্যাকটিসও খুব ভালো। সে টিম টিমিংয়ে অনেক তথ্য দেয়। দলের পরিকল্পনায় সাহায্য করে। সে মাঠেও খুব শান্ত একজন। আপনি কখনো দেখবেন না মুশি মাঠে খুব বেশি আবেগী হয়ে যাচ্ছে। তার অধীনে খেলাটা সব সময় আনন্দদায়ক। এটা দারুণ উপভোগ্য।’ ১৬ রানে ৫ উইকেট আগেও নিয়েছিলেন ফ্রাইলিঙ্ক। দক্ষিণ আফ্রিকার ঘরোয়া আসরেও একই চিত্র ছিলো তার বোলিং ফিগারের। তাই এ ব্যাপারে ফ্রাইলিঙ্ক বলেন, ‘আমি আগেও ১৬ রানে ৫ উইকেট নিয়েছি। এবারও দলের জয়ে অবদান রাখতে পেরেছি। ভালো লাগছে।’ খুলনা টাইগার্সের ফ্রাইলিঙ্কের স্বদেশী রিলি রুশোও ব্যাট হাতে দুর্দান্ত ফর্মে রয়েছেন। ১০ ইনিংসে ৪টি হাফ-সেঞ্চুরিতে ৪১১ রান করেছেন তিনি। ফলে বিপিএলে সর্বোচ্চ রানের তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছেন রুশো। ব্যাটিং ছাড়াও, মাঠে রুশোর নাচ নজর কেড়েছে ক্রিকেটপ্রেমিদের। ব্যাট হাতে হাফ-সেঞ্চুরি ও কুমিল্লার সাব্বির রহমানের ক্যাচ নেয়ার পর চিরচেনা ভঙ্গিমায় নাচলেন তিনি। তার এই নাচের পেছনের রহস্য শোনালেন ফ্রাইলিঙ্ক। তিনি বলেন, ‘রুশো আমাদের দলের জোকার। অনেক বেশি মজা করতে পারে সে। আমরা অবসরে ফিফা খেলি এবং সেখানে একজন ফুটবলার অমন উদযাপন করে। সেটি সাদিও মানের উদযাপন। মানের বড় ভক্ত রুশো। সেখান থেকেই রুশোর ওমন উদযাপন।’-বাসস