রাজশাহীতে অনশনে অসুস্থ পাটকল শ্রমিকের সংখ্যা বাড়ছে

রাজশাহী পাটকল শ্রমিকদের অনশন কর্মসূচি শুক্রবার চারদিনে গড়ায়। শীতের তীব্রতা উপেক্ষা করে পাটকল শ্রমিকরা চারদিন থেকে মিলগেট অবস্থান নিয়েছেন। যতই দিন যাচ্ছে অসুস্থের সংখ্যা বাড়ছে। এরই মধ্যে দুজন শ্রমিক গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়ায় তাদের রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
অনশনরত পাটকল শ্রমিকরা বলছেন, ঘোষিত ১১ দফা দাবি আদায়ে জীবনের শেষ নিঃশ্বাস পর্যন্ত আন্দোলন অব্যাহত থাকবে।
রাজশাহী পাটকল সিবিএ-নন সিবিএ সংগ্রাম পরিষদের সভাপতি জিল্লুর রহমান জানান, আমরণ অনশনে বুধবার রাত থেকে গত বৃহস্পতিবার সকাল তাদের পর্যন্ত পাঁচজন শ্রমিক অসুস্থ হয়েছেন। যার মধ্যে দুজনকে রামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আর তিনজনকে স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। অসুস্থরা হলেন- পাটকল শ্রমিক আসলাম হোসেন (৬৫), মোস্তাফিজুর রহমান (৪০), সাইদুর রহমান (৫৫), আবদুল গফুর (৪৮) ও মনসুর রহমান (৫২)। এদের মধ্যে আসলাম হোসেন ও আবদুল গফুরকে রামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আসলাম পাটকলের অবসরপ্রাপ্ত কর্মচারী।
এদিকে ঘোষিত ১১ দফা দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত অনশন কর্মসূচি চলবে বলে ফের হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন রাজশাহীর পাটকল শ্রমিকরা। শ্রমিকরা বলছেন, তাদের পিঠ দেয়ালে ঠেকে গেছে। সব দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত ঘরে ফেরা তাদের পক্ষে সম্ভব নয়।
কেন্দ্রীয়ভাবে বৈঠক ফলপ্রসূ না হওয়ায় গত ১০ সেপ্টেম্বর দুপুর আড়াইটা থেকে আন্দোলন শুরু করেন পাটকল শ্রমিকরা। রাজশাহী পাটকল মিলগেটের সামনে কাঁথা-বালিশ নিয়ে অনশন কর্মসূচি পালন করছেন পাটকল শ্রমিকরা। তবে শীতের কারণে পাটকল শ্রমিকদের অনেকেই এখন ধীরে ধীরে অসুস্থ হয়ে পড়ছেন।
জাতীয় মজুরি কমিশন বাস্তবায়ন, সরকারি-বেসরকারি অংশীদারী (পিপিপি) সিদ্ধান্ত বাতিল, অবসরপ্রাপ্ত শ্রমিক-কর্মচারীদের পিএফ গ্রাচুইটির টাকাসহ ১১ দফা দাবি বাস্তবায়নের দাবিতে এ গণঅনশন কর্মসূচি পালন করেছেন রাজশাহীর পাটকল শ্রমিকরা।