বেগম রোকেয়া দিবসে জয়িতাদের সংবর্ধনা : পাশে থাকার প্রতিশ্রুতি এমপি জেসির

আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ ও বেগম রোকেয়া দিবস উদযাপন উপলক্ষে জয়িতাদের সংবর্ধনা প্রদান করা হয়েছে। জয়িতা অন্বেষণে বাংলাদেশ কার্যক্রমের আওতায় জয়িতাদের এ সংবর্ধনা প্রদান করা হয়। প্রতিনিধিদের পাঠানো সংবাদ :
নিজস্ব প্রতিবেদক :
জেলা পর্যায়ে ৫ জন এবং সদর উপজেলার ৩ জন জয়িতাকে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে সংবর্ধনা প্রদান করা হয়। এ উপলক্ষে সোমবার জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন সংরক্ষিত আসন ৩৩৮, চাঁপাইনবাবগঞ্জের সংসদ সদস্য ফেরদৌসি ইসলাম জেসি।
অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মাশরুবা ফেরদৌসের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে ফেরদৌসি ইসলাম জেসি জয়িতাদের উদ্দেশে বলেন- আমি আপনাদের সংগ্রামী জীবনের গল্প শুনে অবাক হয়েছি। আপনারা জীবন যুদ্ধে জয়ী হয়েছেন এবং একেকজন একেক ক্ষেত্রে বিশেষ অবদানও রেখেছেন। আপনাদের দেখে আমি অনুপ্রাণিত হলাম, আমি আমার জীবনে আরো বেশি পরিশ্রমী হবার চেষ্টা করবো। তিনি বলেন- চাঁপাইনবাবগঞ্জ মানেই জামায়াত-বিএনপির ঘাঁটি নয়। আপনারা এমনভাবে কাজ করবেন যাতে শুধু জেলা উপজেলাতেই নয়- জাতীয়ভাবেও পুরস্কৃত হবেন। চাঁপাইনবাবগঞ্জ মানেই জয়িতা, চাঁপাইনবাবগঞ্জ মানেই আওয়ামী লীগ, চাঁপাইনবাবগঞ্জ মানেই বঙ্গবন্ধু শেখ মজিুবুর রহমান আর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ভালো কাজে তিনি সকলের পাশে থাকার প্রতিশ্রুতি দেন।
অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন, নবাবগঞ্জ সরকারি কলেজের অবসর প্রাপ্ত অধ্যক্ষ প্রফেসর সুলতানা রাজিয়া, জেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক সাহিদা আখতারসহ অন্যরা। জয়িতারাও তাদের জীবন সংগ্রামের কথা তুলে ধরেন। এসময় আওয়ামী লীগ নেতা মেসবাহুল শাকের জ্যোতি উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য, চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলা পর্যায়ে অর্থনৈতিকভাবে সাফল্য অর্জনকারী নারী হিসেবে শ্রেষ্ঠ জয়িতা নির্বাচিত হয়েছেন জেলা শহরের ঝিলিম রোডের রাসিদা খাতুন, শিক্ষা ও চাকরি ক্ষেত্রে সাফল্য অর্জনকারী নারী হিসেবে সরকারি শিশু পরিবারের সদস্য সুলতানা রাজিয়া, নির্যাতনের বিভীষিকা মুছে ফেলে নতুন উদ্যোমে জীবন শুরু করা নারী শিমুলতলা গ্রামের রাশিদা আক্তার লালবানু।
জেলা পর্যায়ে অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী নারী হিসেবে শ্রেষ্ঠ জয়িতা হয়েছেন শিবগঞ্জ উপজেলার আব্বাস বাজার এলাকার উম্মে সালমা, শিক্ষা ও চাকরি ক্ষেত্রে সাফল্য অর্জনকারী নারী হিসেবে সরকারি শিশু পরিবারের সদস্য সুলতানা রাজিয়া, সফল জননী হিসেবে শ্রেষ্ঠ জয়িতা হয়েছেন গোমস্তাপুর উপজেলার খোসালপাড়া গ্রামের জাহানারা বেগম, নির্যাতনের বিভীষিকা মুছে ফেলে নতুন উদ্যোমে জীবন শুরু করা নারী শিবগঞ্জ উপজেলার মনাকষা গ্রামের মালেকা বেগম এবং সমাজ উন্নয়নে অসামান্য অবদান রাখা নারী ভোলাহাট উপজেলার গোহালবাড়ী এলাকার দিলারা খাতুন। পরে তাদেরকে ক্রেস্ট ও সনদপত্র প্রদান করা হয়। জেলা প্রশাসন ও জেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর এ কর্মসূচির আয়োজন করে।
অপরদিকে,  চাঁপাইনবাবগঞ্জে প্রগতিশীল নারীদের সংগঠন জাগো নারী বহ্নিশিখার উদ্যোগে বেগম রোকেয়া দিবস উদযাপন করা হয়েছে। সোমবার বিকেলে নবাবগঞ্জ সরকারি কলেজ শহীদ মিনারে এক আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। সংগঠনের আহবায়ক ফারুকা বেগমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য দেন শিরিন বেগম, শেফালী খাতুন, মারিয়া হাসান, শিরিন জাহান, ইসরাইল সেন্টু, শফিকুল ইসলাম, আলী আশরাফ, আজিজুর রহমান, আনিফ রুবেদ প্রমূখ।
অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন, সংগঠনটির সদস্য সচিব মনোয়ারা খাতুন। বক্তার বলেন, বেগম রোকেয়ার দেখানো পথ ধরে এখনো অনেক হাঁটতে হবে আমাদের। নারীরা লেখাপড়ায় এগিয়েছে অনেক। কিন্তু তাঁরা নিরাপদ হননি। দূর হয়নি নারী-পুরুষের বৈষম্য।
নাচোল প্রতিনিধি :
চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোলে ভিন্ন ভিন্ন কর্মসূচির মধ্যদিয়ে “আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন পক্ষ ও বেগম রোকেয়া দিবস” পালিত হয়েছে। “নারী-পুরুষ সমতা, রুখতে পারে সহিংসতা” প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে নাচোল উপজেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর ও উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে ও বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ডাস্কোর সহযোগিতায় এ কর্মসূচী পালিত হয়। এর মধ্যে মানবন্ধন, নারী সমাবেশ, আলোচনাসভা ও জয়িতা অন্বেষণের আওতায় বিভিন্নক্ষেত্রে সফল স্থানীয় ৫ জয়িতাকে ক্রেস্ট ও সনদ প্রদান করা হয়। সংবর্ধিত জয়িতা ৫ নারী হচ্ছেন অর্থনৈতিকভাবে সাফল্য অর্জিত নেজামপুর ইউনিয়নের জোকগোকুল গ্রামের দাসু বর্মনের মেয়ে শ্রীমতি বর্ণিতা বর্মন, শিক্ষা ও চাকুরিতে সাফল্য অর্জিত নারী কসবা ইউনিয়নের কালইর গ্রামের কামরুজ্জামানের মেয়ে কামরুন নাহার খাতুন, সফল জননী নারী নাচোল পৌরসভার ইসলামপুর মহল্লার ইসমাইল হোসেনের মেয়ে ইরাতন, নির্যাতনের বিভীষিকা মুছে ফেলে নতুন জীবন শুরু করেছে যে নারী পৌর এলাকার কলেজপাড়া মহল্লার রবিউল ইসলামের মেয়ে নাতিসা খাতুন এবং সমাজ উন্নয়নে অসামান্য অবদান রেখেছেন নাচোল ইউনিয়নের সংরক্ষিত ইউপিসদস্য নাসিমা খাতুন। এ উপলক্ষ্যে সোমবার সকাল সাড়ে দশটায় নাচোল উপজেলা পরিষদ হলরুমে ইউএনও সাবিহা সুলতানার সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল কাদের। অন্যান্যের মাঝে বক্তব্য রাখেন,নাচোল পৌর মেয়র আব্দুর রশিদ খান, উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা প্রভাতী মাহাতো, নাচোল থানার এসআই শিশির, নাচোল খুরশেদ মোল্লা সরকারী উচ্চবালিকা বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক রোকেয়া বেগম।
ভোলাহাট প্রতিনিধি :
জেলার ভোলাহাট উপজেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের আয়োজনে আর্ন্তজাতীক নারী নির্যাতন পক্ষ ও বেগম রোকেয়া দিবস সোমবার উদযাপন করা হয়েছে। সকাল ১০টার দিকে উপজেলা পরিষদ চত্বর থেকে এক বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের হয়ে প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে একই স্থানে এসে শেষ হয়। ভোলাহাট উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি আলহাজ¦ হাসান আলীর সভাপতিত্বে উপজেলা পরিষদ চত্বরে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় প্রধান অতিথি ছিলেন, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান রাব্বুল হোসেন। বিশেষ অতিথি থেকে বক্তব্য রাখেন, ভোলাহাট উপজেলা নির্বাহী অফিসার রাজিবুল আলম।
গোমস্তাপুর প্রতিনিধি : চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুরে বেগম রোকেয়া দিবস ২০১৯ উদযাপিত হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে উপজেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের আয়োজনে এক র‌্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। র‌্যালিটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে উপজেলা পরিষদ সভা কক্ষে এক আলোচনা সভার মাধ্যমে শেষ হয়। উপজেলা নির্বাহি অফিসার মিজানুর রহমানের সভাপতিত্বে এ আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা কৃষি অফিসার মাসুদ হোসেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা আকতার আলী খান কচি, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার ফেরদৌসী বেগম, মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা বরুণ কুমার পাল, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা হাবিবুর রহমান, উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি আতিকুল ইসলাম আজম সহ উপজেলার বিভিন্ন মহিলা সমিতির নেতৃবৃন্দ।
নিয়ামতপুর প্রতিনিধি : নওগাঁর নিয়ামতপুরে নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ ও রোকেয়া দিবস যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হয়েছে। সোমবার বেলা ১০টায় উপজেলা পরিষদ মিলানায়তনে আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার জয়া মারীয়া পেরেরার সভাপতিত্বে সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসাব উপস্থিত ছিলেন উপেেজলা পরিষদ চেয়ারম্যান ফরিদ আহমেদ।
বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আইয়ুব হোসাইন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নাদিরা বেগম, উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা অফিসার সেলিম উদ্দিন, উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা নিলুফার ইয়াসমিন।
আলোচনা শেষে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে ৫জনকে জয়ীতা নির্বাচিতদের সংবর্ধনা প্রদান করা হয়। উপজেলা পর্যায়ে সফল জননী হিসাবে উপজেলা শ্রীমন্তপুর ইউনিয়নের ভাদরন্ড গ্রামের শীতলী রানী, অর্থনৈতিকভাবে সাফল্য অর্জনকারীতে নিয়ামতপুর সদর ইউনিয়নের বালাহৈর গ্রামের মোসাঃ সাহেরা খাতুন, নির্যাতনে বিভীষিকা মুছে নতুন উদ্যামে জীবন শুরু করায় বাহাদুরপুর ইউনিয়নের ভালাইনঘাটি গ্রামের মোছাঃ সাথী খাতুন, সমাজ উন্নয়নে অসামান্য অবদান রাখায় শ্রীমন্তপুর ইউনিয়নের ভাদরন্ড গ্রামের ও বর্তমান উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নাদিরা বেগম ও শিক্ষা ও চাকুরী ক্ষেত্রে সাফল্য অর্জন করায় শ্রীমন্তপুর ইউনিয়নের ঝাজিরা গ্রামের স্কুল শিক্ষিকা মোছাঃ বিলকিস পারভীনকে শ্রেষ্ঠ জয়িতা নির্বাচন করে তাদের ক্রেষ্ট ও সনদপত্র প্রদান করা হয়।