সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলে ‘শিগগিরই’ অভিযান শুরু করবে তুরস্ক

তুরস্ক মঙ্গলবার বলেছে, তারা সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলে ‘শিগগিরই’ অভিযান শুরু করবে। এদিকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প জোর দিয়ে বলেছেন, ওই এলাকা থেকে সৈন্য প্রত্যাহার করেও তারা কুন্দি মিত্রদের পরিত্যাগ করেনি। খবর এএফপির।
এএফপির এক সংবাদদাতা জানান, সিরিয়া সীমান্তে আরো সাঁজোয়া যান পাঠিয়েছে ইস্তাম্বুল। তুরস্কের সানলিউরফা প্রদেশের আক্কাকালি শহরে বিশাল সামরিক বাহিনীর গাড়িবহর দেখা গেছে।
এদিকে কুর্দি নেতৃত্বাধীন সিরিয়ান ডেমোক্রেটিক ফোর্সেস (এসডিএফ) জানায়, তুর্কি বাহিনী সীমান্ত বরাবর হামলা চালাচ্ছে। প্রধান সীমান্ত শহর রাস আল-আইনের কথা উল্লেখ করে মঙ্গলবার রাতে দেয়া এক টুইটার বার্তায় এসডিএফ বলেছে, ‘তুর্কি বাহিনী তুরস্ক সীমান্তের সারিকানিয়ায় আমাদের বিভিন্ন অবস্থানের একটি লক্ষ্য করে গোলাবর্ষণ করছে।’
যুক্তরাজ্যভিত্তিক মানবাধিকার বিষয়ক সিরীয় পর্যবেক্ষণ সংস্থা জানায়, যুক্তরাষ্ট্র সোমবার যে স্থান থেকে তাদের সৈন্য প্রত্যাহার করে নেয় সে স্থানে এ হামলা চালানো হয়।
এসডিএফ বলেছে, ‘সেখানে এ হামলায় আমাদের কোনো সৈন্য আহত হয়নি। আমাদের পক্ষ থেকে এই উস্কানিমূলক হামলার কোনো জবাব দেয়া হয়নি। আমরা এ অঞ্চলের জনগণের নিরাপত্তা রক্ষায় প্রস্তুত রয়েছি।’
এদিকে রবিবার ট্রাম্প আকস্মিকভাবে সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলীয় সীমান্ত থেকে ৫০ থেকে ১০০ সৈন্য প্রত্যাহার করে নেয়ার ঘোষণা দেন।