স্মিথ-কামিন্স টেস্ট র‌্যাংকিংয়ে শীর্ষস্থান ধরে রেখেছেন

3

অ্যাশেজে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করে টেস্ট র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষস্থান অটুট রেখেছেন অস্ট্রেলিয়ার স্টিভেন স্মিথ ও প্যাট কামিন্স।
ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সদ্য সমাপ্ত পাঁচ ম্যাচের অ্যাশেজ সিরিজে ২-২ ব্যবধানে ড্র করে ট্রফি নিজেদের কাছে রেখেছে অস্ট্রেলিয়া। ওভালে হওয়া শেষ টেস্টে দুই ইনিংসে ৮০ ও ২৩ রান করেছেন স্মিথ। ম্যাচটিতে অবশ্য ১৩৫ রানে জিতেছে স্বাগতিক ইংল্যান্ড। তবে পুরো টুর্নামেন্টে সর্বোচ্চ ৭৭৪ রান করেছেন স্মিথ এবং সর্বোচ্চ ২৯ উইকেট নিয়েছেন কামিন্স। যার মধ্যে পঞ্চম টেস্টে ৫ উইকেট নিয়েছেন এই অজি পেসার।
আইসিসি টেস্টে র‌্যাংকিংয়ে ব্যাটসম্যানদের মধ্যে ৯৩৭ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষস্থান ধরে রেখেছেন স্মিথ। সাবেক অজি অধিনায়কের পেছনে আছেন বিরাট কোহলি। টিম ইন্ডিয়া অধিনায়কের রেটিং পয়েন্ট ৯০৩। ৮৭৮ পয়েন্ট নিয়ে তিনে আছেন নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন।
বোলারদের মধ্যে ৯০৫ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে সিংহাসন অটুট রেখেছেন কামিন্স। তার পেছনে আছেন দক্ষিণ আফ্রিকার কাগিসো রাবাদা ও ভারতের জসপ্রীত বুমরাহ।
বল টেম্পারিংয়ের অভিযোগে এক বছরের নিষেধাজ্ঞা কাটানোর পর অ্যাশেজ সিরিজ দিয়ে সাদা পোশাকের ক্রিকেটে ফেরেন স্মিথ। শুরু করেছিলেন র‌্যাংকিংয়ের চতুর্থ স্থানে থেকে। তবে অ্যাশেজে সাত ইনিংস ব্যাট করে তিন সেঞ্চুরির পাশপাশি তিন ফিফটিতে তিনি ওঠে আসেন আইসিসি র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষস্থানে। রেকর্ড ভাঙা ফেরা সত্বেও জোফরা আর্চারের বাউন্সারে মাথায় আঘাত পাওয়ায় সিরিজের একটি টেস্ট খেলতে পারেননি স্মিথ।
অজি ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নারও লাল বলের ক্রিকেটে ফিরেছিলেন ১২ মাসের নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে। কিন্তু পুরো টুর্নামেন্ট জুড়ে একটি ফিফটি দূরে থাক, ১০ ইনিংস মিলিয়েও একশ’ রান করতে পারেননি তিনি। অ্যাশেজে ১০ ইনিংস ব্যাট করে ওয়ার্নার রান করেছেন মাত্র ৯৫! অজি ওপেনার টেস্ট র‌্যাংকিংয়ে আছেন ২৪তম স্থানে।
ওয়ার্নারের ব্যর্থতায় এরইমধ্যে কোনো টেস্ট না খেলে ২৩ নাম্বারে ওঠে এসেছেন বাংলাদেশি ব্যাটসম্যান তামিম ইকবাল। ৩০ নাম্বারে নেমে গেছেন সাকিব আল হাসান।
অভিষেক টেস্ট সিরিজ খেলতে নেমেই শীর্ষ চল্লিশে জায়গা পেয়েছেন আর্চার। ইংলিশ পেসার টেস্ট বোলারদের মধ্যে আছেন ৩৭তম স্থানে। অ্যাশেজের সর্বশেষ ওভাল টেস্টের প্রথম ইনিংসে ৬ উইকেট পেয়েছেন তিনি।
বাংলাদেশি বোলারদের মধ্যে টেস্ট র‌্যাংকিংয়ে শীর্ষে আছেন সাকিব। আগের ২৩তম স্থান অবস্থান ধরে রেখেছেন এই টাইগার অলরাউন্ডার।
আইসিসি তাদের সর্বশেষ র‌্যাংকিং হালনাগাদ করেছে রোববার (১৫ সেপ্টেম্বর)।