মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার আগস্টের মধ্যে উন্মুক্ত হবে : প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী

প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী ইমরান আহমেদ বলেছেন, আগামী আগস্ট মাসের মধ্যে মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার উন্মুক্ত হয়ে যাবে। তিনি বলেন, ‘আগামী মাসের মধ্যে মালয়েশিয়ায় শ্রমবাজার উন্মুক্ত হয়ে যাবে। সেখানে নতুন শ্রমিক নিয়োগও শুরু হবে। এ ব্যাপারে সে দেশের সঙ্গে কথা হয়েছে। প্রথম ধাপের কাজও শেষ হয়েছে।’
প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী শনিবার দুপুরে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন।
দালাল ও এজেন্টদের ব্যাপারে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে তিনি বলেন, আমার প্রথম কাজই হবে তাদেরকে ধরা, যারা অবৈধভাবে বিদেশে লোক পাঠান। এসব মৃত্যুর জন্য দালাল চক্রই দায়ী আর এদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। দালালদের ব্যাপারে সজাগ থেকে তাদেরকে আইনের হাতে সোপর্দ করতে সবাইকে এগিয়ে আসার আহবান জানান মন্ত্রী।
ইমরান আহমেদ বলেন, আমাদের দেশের নাগরিক বিদেশে যাবার সময় মারা যাক এটা আমরা চাই না। নৌকায় করে এজেন্ট বা দালালরা বিদেশে যাবার ব্যবস্থা করে দেয়। অবৈধ পথে যারা ওদের নিয়ে যায় আর ওরা যে মারা যায় এটাকে খুন করা হিসেবেই ধরা হবে।
বিদেশে নারী শ্রমিক নির্যাতন নিয়ে তিনি বলেন, বাংলাদেশ থেকে যারা মধ্যপ্রাচ্যে যান তারা একা হয়ে পড়েন। ভাষাগত কারণে অনেক সময় সমস্যার সৃষ্টি হয়। যে কারণে অনেকে দেশে ফিরে আসার জন্য নির্যাতনের কথা বলেন। যে কারণে প্রশিক্ষণের মাধ্যমে নারী শ্রমিক পাঠানো ব্যবস্থা করা হচ্ছে।
এর আগে মন্ত্রী টুঙ্গিপাড়ায় পৌঁছে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান। পরে বঙ্গবন্ধু ও পরিবারের নিহত সদস্যদের রুহের মাগফিরাত কামনা করে ফাতেহা পাঠ ও বিশেষ মোনাজাত করেন। পরে বঙ্গবন্ধু ভবনে রক্ষিত মন্তব্য বইয়ে স্বাক্ষর করেন।
এ সময় প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক মন্ত্রণালয়ের ওনার কল্যাণ বোর্ডের মহাপরিচালক গাজী জুলহাস, যুগ্মসচিব জাহিদ হোসেন, বোয়েসেলের নির্বাহী পরিচালক মরন কুমার চক্রবর্তী, বায়রার সভাপতি বেনজির আহম্মেদ এমপি, মহাসচিব শামীম আহমেদ চৌধুরী নোমান, গোপালগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি চৌধুরী এমদাদুল হক ও সাধারণ সম্পাদক মাহাবুব আলী খান, টুঙ্গিপাড়া উপজেলা চেয়ারম্যান সোলায়মান বিশ্বাস, টুঙ্গিপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ইলিয়াস হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।