বিদ্যুৎ ব্যবস্থা উন্নয়নে ৩৪ হাজার ৫০০ কোটি টাকা দেবে চীন

দেশের বিদ্যুৎ উৎপাদনে ব্যাপক উন্নতি সাধন হয়েছে এবং এটিকে আরো প্রসারের জন্য এই খাতে এবার সহযোগিতা করতে যাচ্ছে চীন। বিদ্যুৎ সঞ্চালন ও বিতরণ ব্যবস্থার উন্নয়ন এবং অর্থনৈতিক ও কারিগরি সহযোগিতা বাড়াতে চীনের সঙ্গে পাঁচটি চুক্তি করেছে বাংলাদেশ। এজন্য প্রায় ৩৪ হাজার ৫০০ কোটি টাকা পাবে ডিপিডিসি ও পিজিসিবি। ঢাকায় বিদ্যুৎ বিভাগ সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
গত বৃহস্পতিবার বেইজিংয়ের গ্রেট হল অব দ্য পিপলে চীনের প্রধানমন্ত্রী লি কেকিয়াং এবং বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপস্থিতিতে ওই পাঁচটি চুক্তির পাশাপাশি তিনটি সমঝোতা স্মারক সই এবং একটি লেটার অব এক্সচেঞ্জ বিনিময় হয়। এর মধ্যে চারটি চুক্তির আওতায় বিদ্যুৎ সঞ্চালন ও বিতরণ ব্যবস্থার উন্নয়নে ঢাকা পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড (ডিপিডিসি) ১৪০ কোটি ডলার পাবে। একটি চুক্তির আওতায় পাওয়ার গ্রিড কোম্পানি অব বাংলাদেশ (পিজিসিবি) পাবে ২৮০ কোটি ৪০ লাখ ডলার। এই দুটি চুক্তির আওতায় বাংলাদেশী মুদ্রায় পাওয়া যাবে প্রায় সাড়ে ৩৪ হাজার কোটি টাকা।
সূত্র মতে, উল্লিখিত দুটি চুক্তি ছাড়াও অর্থনৈতিক ও কারিগরি সহযোগিতা চুক্তির আওতায় বাংলাদেশ ৭ কোটি ২৭ লাখ ডলার পাবে বলে জানা গেছে।
বিদ্যুৎ খাতের এই চুক্তিগুলোকে যুগান্তকারী আখ্যা দিয়ে ডিপিডিসি’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশলী বিকাশ দেওয়ান বলেন, এই সময়ের জন্য আমরা ৪ বছর যাবৎ অপেক্ষা করছি। প্রকল্পগুলোর আওতায় ১৩২ কেভি সাব স্টেশন, ৩৩/১১ কেভি সাব স্টেশন এবং পুরাতন ৩৩/১১ কেভি সাব স্টেশন মিলিয়ে মোট ৫২টি সাব স্টেশন নির্মিত হবে। তিনি বলেন, শুধু তাই নয়, ১৩২ কেভি বিতরণ লাইন প্রায় ৬০০ কিলোমিটার এবং ৩৩ কেভি বিতরণ লাইন প্রায় ৭শ কিলোমিটার নির্মিত হবে। এদিকে পিজিসিবি চীনের কাছ থেকে পাওয়া ঋণে সঞ্চালন লাইনের সম্প্রসারণ সহ ১৪টি প্রকল্প বাস্তবায়ন করবে।