এবার সবচেয়ে দ্রুতগতির চার্জার দেখালো ভিভো

সুপার ফ্ল্যাশচার্জ ১২০ ওয়াট প্রযুক্তি আনলো চীনা স্মার্টফোন ব্র্যান্ড ভিভো। এটি কীভাবে কাজ করে তা নিয়ে এখনও কোনো বিস্তারিত তথ্য প্রকাশ হয়নি। তবে এই প্রযুক্তিতে ১৩ মিনিটে চার হাজার এমএএইচ ফোন ব্যাটারি চার্জ করা সম্ভব বলে দাবি করা হয়েছে।
ভিভোর দাবি সত্যি হলে বাজারে থাকা কোনো ফোন চার্জের জন্য এটিই সবচেয়ে দ্রুত সমাধান হবে– খবর প্রযুক্তি সাইট ভার্জের।
এ নিয়ে আরও তথ্যের জন্য অনুরোধ করা হলেও প্রতিষ্ঠানটির প্রতিনিধিরা কোনো সাড়া দেননি।
ভিভো-এর এক পণ্য ব্যবস্থাপক ওয়েইবোতে একটি ভিডিও প্রকাশ করেছেন। এতে দেখানো হয়, একটি স্মার্টফোন ১৬ সেকেন্ডের মতো সময়ে ১০ শতাংশ চার্জ থেকে ১৪ শতাংশে চলে আসে। তবে এ ক্ষেত্রে পুরো চার্জ হওয়ার কোনো নজির দেখানো হয়নি। এখন পর্যন্ত এ ক্ষেত্রে ভিভোর সবচেয়ে বড় চেষ্টা ছিল তাদের ৪৪ ওয়াট চার্জিং সুবিধা, যা ছিল প্রতিষ্ঠানটির আইকিউওও গেইমিং ফোনে। এতে ৪০০০ এমএএইচ-এর ব্যাটারি ৪৫ মিনিটে পুরো চার্জ নিতে সক্ষম ছিল।
চলতি বছরের মার্চ মাসে ১০০ ওয়াটের চার্জিং ব্যবস্থা দেখিয়েছে শিয়াওমি। ৪০০০এমএএইচ ব্যাটারি ১৭ মিনিটে চার্জ করতে পারে তাদের প্রযুক্তি। এখন পর্যন্ত অবশ্য কোনো বাণিজ্যিক ডিভাইসে দেখা যায়নি এটি।
আগের বছর ফাইন্ড এক্স ল্যাম্বরগিনি এডিশনে সুপার ভুক চার্জিং উন্মোচন করেছে অপো। ৩৫ মিনিটে ৩৪০০এমএএইচ ব্যাটারি পুরো চার্জ করতে পারে এই প্রযুক্তি।
সামনের সপ্তাহে এমডাব্লিউসি সাংহাইয়ে নিজেদের প্রথম ৫জি ডিভাইসের সঙ্গে সুপার ফ্ল্যাশচার্জ ১২০ ওয়াট প্রদর্শন করতে পারে ভিভো।