ওয়েস্ট ইন্ডিজকে সহজেই হারাল ইংল্যান্ড

সাউদাম্পটনে বেশ কিছুক্ষণ বৃষ্টি হয়েছিল। ছিল আবারো ম্যাচ পরিত্যক্ত হওয়ার আশঙ্কা। কিন্তু না। বৃষ্টি বাগড়া দেয় ইংল্যান্ড-ওয়েস্ট ইন্ডিজ ম্যাচে। যথাসময়েই ম্যাচ গড়িয়েছে মাঠে গড়ায়। এদিকে বৃষ্টিবিহীন ম্যাচে সহজেই জয় তুলে নিয়েছে ইংল্যান্ড।
গত শুক্রবার ওয়েস্ট ইন্ডিজকে একেবারে হেসে-খেলে হারায় ইংল্যান্ড। টসে হেরে আগে ব্যাট করতে নেমে উইন্ডিজরা জোফরা আর্চারের বোলিং তোপে মাত্র ২১২ রানে গুটিয়ে যাওয়ার পর জো রুটের সেঞ্চুরির সুবাদে ৮ উইকেট হাতে রেখেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় ইংলিশরা। ছোট লক্ষ্য তাড়া করতে নামা ইংল্যান্ডের হয়ে এদিন অবশ্য ওপেন করতে নামেন নিয়মিত ওপেনার জনি বেয়ারস্টো ও নম্বর তিনে ব্যাট করা জো রুট। কারণ দলের আরেক ওপেনার জেসন রয় উইন্ডিজদের ব্যাটিং ইনিংসের সময় ইনজুরিতে পড়েন।
নতুন জুটি অবশ্য ইংল্যান্ডকে উড়ন্ত সূচনাই এনে দেয়। ক্যারিবিয়ানদের বিধ্বংসী বোলিং লাইনআপকে ছাতুপেটা করে উদ্বোধনী জুটিতেই স্কোর বোর্ডে ৯৫ রান তুলে ফেলেন বেয়ারস্টো ও রুট। এবারের বিশ্বকাপে প্রথম ম্যাচ খেলতে নামা শ্যানন গ্যাব্রিয়েল ভাঙেন এ জুটি। ৪৫ রান করে ফিরে যান বেয়ারস্টো। এদিকে লোয়ার-মিডল অর্ডার থেকে প্রমোশন পেয়ে তিনে নেমে পড়েন পেস বোলিং অলরাউন্ডার ক্রিস ওকস। তিনিও হতাশ করেননি স্বাগতিক সমর্থকদের। রুট উইকেটের একপ্রান্ত থেকে যেমন রানের ফুলঝুরি ছোটাচ্ছিলেন, তেমনি তিনিও রুটকে দেন যোগ্য সঙ্গ। তবে এই জুটি ম্যাচ শেষ করে আসতে পারেনি। ৪০ রান করে ওকস গ্যাব্রিয়েলের দ্বিতীয় শিকারে পরিণত হলে বেন স্টোকসকে নামতে হয় ম্যাচ শেষ করতে। এর মধ্যে, ঠিকই সেঞ্চুরি তুলে নেন রুট। ৯৩ বলে এবারের বিশ্বকাপে নিজের দ্বিতীয় সেঞ্চুরির দেখা পান এই ডানহাতি। শেষতক, স্টোকসের ১০ আর রুট ঠিক ১০০ রানেই অপরাজিত থাকলে ১৬৫ বল আর ৮ উইকেট হাতে রেখেই জয়ের হাসি-হাসে ইংল্যান্ড দল।