বাজেট পেশ বুধবার : সংসদের তৃতীয় অধিবেশন ১১ জুলাই পর্যন্ত চলবে

একাদশ জাতীয় সংসদের তৃতীয় (বাজেট) অধিবেশন আগামী ১১ জুলাই বৃহস্পতিবার পর্যন্ত চালানোর সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। মঙ্গলবার সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত কার্য উপদেষ্টা কমিটির তৃতীয় সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। সভায় প্রয়োজনে এ সময় স্পিকার পরিবর্তন করতে পারবেন বলেও সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।
কমিটির সভাপতি জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী সভায় সভাপতিত্ব করেন। কমিটির সদস্য, সংসদ নেতা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সভায় অংশগ্রহণ করেন। এছাড়া কমিটির সদস্য রওশন এরশাদ, আমির হোসেন আমু, তোফায়েল আহমেদ, শেখ ফজলুল করিম সেলিম, ওবায়দুল কাদের, রাশেদ খান মেনন, হাসানুল হক ইনু, মো. ফজলে রাব্বী মিয়া, আনিসুল হক, আনিসুল ইসলাম মাহমুদ এবং নূর-ই-আলম চৌধুরী সভায় অংশগ্রহণ করেন।
সভায় সিদ্ধান্ত নেয়া হয় যে, ১৩ জুন বৃহস্পতিবার  ২০১৯-’২০ অর্থবছরের বাজেট উপস্থাপন করা হবে। ১৪ ও ১৫ জুন দুদিন বন্ধ থাকার পর ১৬ জুন সম্পূরক বাজেটের ওপর আলোচনা শুরু হবে। ১৭ জুন সম্পূরক বাজেট পাশ করা হবে। ১৮ জুন হতে বাজেটের ওপর সাধারণ আলোচনা শুরু হবে। আগামী ২২ ও ২৯ জুন এই দুই শনিবার অধিবেশন কার্যক্রম চলবে। ৩০ জুন ২০১৯-’২০ অর্থবছরের বাজেট পাশ করা হবে। এরপর ১ থেকে ৬ জুলাই পর্যন্ত অধিবেশন বন্ধ থাকবে। ৭ থেকে ১১ জুলাই পর্যন্ত এ অধিবেশন চলবে। প্রতিদিন বিকাল ৩টায় অধিবেশন শুরু হবে।
সভায় জানানো হয়, একাদশ জাতীয় সংসদের তৃতীয় অধিবেশনে সংসদে উত্থাপনের জন্য কোনো সরকারি বিলের নোটিশ পাওয়া যায়নি। পূর্বে অনিষ্পন্ন ৩টি সরকারি বিল পাশের জন্য কমিটিতে পরীক্ষাধীন রয়েছে। বেসরকারি সদস্যদের নিকট হতে কোনো বিলের নোটিশ পাওয়া যায়নি। পূর্বে প্রাপ্ত ও অনিষ্পন্ন ১টি বেসরকারি বিল রয়েছে। এ অধিবেশনের জন্য এ পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রীর জন্য ৮৩টি ও সাধারণ প্রশ্ন ১ হাজার ৮৫১টিসহ প্রাপ্ত মোট প্রশ্নের সংখ্যা ১ হাজার ৯৩৪টি। এছাড়া ১৭০টি সিদ্ধান্ত প্রস্তাব (বিধি ১৩১) ও ৪৭টি মনোযোগ আকর্ষণের নোটিশ (বিধি ৭১) পাওয়া গেছে।
সংসদ সচিবালয়ের সিনিয়র সচিব ড. জাফর আহমেদ খান সভার কার্যপত্র উপস্থাপন করেন। সভায় এ সময় সংসদ সচিবালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।