কোপা আমেরিকা জিতে শিরোপা খরা কাটাতে উদগ্রীব মেসি

ব্রাজিলিয়ান সুপারস্টার নেইমার গোঁড়ালির ইনজুরির কারণে ছিটকে যাওয়ায় চলতি সপ্তাহ থেকে শুরু হতে যাওয়া দক্ষিণ আমেরিকান ফুটবলের সর্বোচ্চ আসর কোপা আমেরিকার মূল কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হয়েছেন আর্জেন্টাইন তারকা লিওনেল মেসি। বড় কোনো আসরে আর্জেন্টিনার শিরোপা খরা কাটানোর এই সুযোগটা অন্তত এবার আর হাতছাড়া করতে চান না বার্সেলোনার সুপারস্টার।
পাঁচবারের ব্যালন ডি’অর বিজয়ী মেসি ফুটবলের ইতিহাসে নিজ ক্লাব বার্সেলোনার হয়ে একের পর এক শিরোপার দেখা পেলেও জাতীয় দলের হয়ে তার সাফল্যের চিত্রটা সম্পূর্ণ ভিন্ন। এরই মধ্যে বার্সেলোনার জার্সি গায়ে চারটি চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ও ১০টি লা লিগা শিরোপা জেতা হয়ে গেছে। কিন্তু মেসির এই সাফল্য কোনোভাবেই আর্জেন্টিনার সাফল্যের সাথে তুলনা করা যায় না। ৩১ বছর বয়সী মেসিও খুব ভালোভাবেই জানেন, ক্লাবের সাথে জাতীয় দলের সাফল্য তুলনা করতে গেলে তার হাতে সময়ও ফুরিয়ে যাচ্ছে।
গত সপ্তাহে ফক্স স্পোর্টসকে মেসি বলেছেন, ‘জাতীয় দলের হয়ে কিছু একটা জয় করে আমি ক্যারিয়ারের ইতি টানতে চাই। অন্তত সম্ভাব্য শেষ চেষ্টাটুকু করতে চাই।’
আর্জেন্টিনার জার্সি গায়ে এরই মধ্যে মেসির চারটি বড় টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা হয়ে গেছে। কিন্তু একটিতেও সাফল্য ধরা দেয়নি। যার মধ্যে ছিল গত দুই কোপা ফাইনাল। দুটিতেই পেনাল্টিতে চিলির কাছে হার মানতে হয়েছে আর্জেন্টিনাকে। তবে সবচেয়ে দুঃখজনক ছিল ঐতিহাসিক মারাকানা স্টেডিয়ামে ২০১৪ বিশ্বকাপের ফাইনালে জার্মানির কাছে পরাজয়। এই মাঠেই আগামী ৭ জুলাই এবারের কোপা আমেরিকার ফাইনাল ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে। জার্মানির বিপক্ষে ফাইনালে পরাজয়টি ছিল টানা তিন বছর ফাইনালে আর্জেন্টিনার হতাশার আরেকটি চিত্র। ওই ম্যাচের পরেই হতাশ মেসি আন্তর্জাতিক ফুটবল থেকে অবসরের ঘোষনা দেন। বিশ্বকাপের হারের পরে মেসি ও তার সতীর্থদের ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছিল। মেসি বলেন, ‘সবদিক থেকেই আর্জেন্টাইন সমর্থকরা আমাদের আক্রমণ করেছিল।’
যদিও মেসির অবসরের সিদ্ধান্ত মাত্র ছয় সপ্তাহ স্থায়ী হয়েছিল। গত বছর রাশিয়া বিশ্বকাপের বাছাইপর্বের শেষ ম্যাচে মেসির হ্যাটট্রিকে ইকুয়েডরকে ৩-১ গোলে পরাজিত করে আর্জেন্টিনা মূল পর্বের টিকিট পায়। কিন্তু এর আগেও বহুবার মেসি তার বার্সা ফর্মকে জাতীয় দলের সাথে মানিয়ে নিতে ব্যর্থ হয়েছে। ফ্রান্সের কাছে দ্বিতীয় রাউন্ডে ৪-৩ গোলে পরাজিত হয়ে রাশিয়া বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নিয়েছিল আলবিসেলেস্তারা। রাশিয়া বিশ্বকাপের পর এ পর্যন্ত আর্জেন্টিনার ছয়টি প্রীতি ম্যাচের একটিতেও খেলেননি মেসি। কিন্তু এবার আর অবসরের বিষয়টি সামনে আসেনি।
এবারের কোপা আমেরিকায় আর্জেন্টিনা দলটি অনেকটাই অনভিজ্ঞ। ব্রাজিলের মাটিতে পুনর্গঠিত এই দলকে নিয়ে লড়াই করার মানসিকতাই দেখিয়েছেন মেসি। তিনি বলেন, ‘অন্য সব আসরের মতো একই আশা নিয়ে আমরা টুর্নামেন্টে মাঠে নামব। এই দলের অনেকের জন্য এটা প্রথম অফিসিয়াল টুর্নামেন্ট। কিন্তু এই বিষয়টি আর্জেন্টিনার শিরোপা জয়ের স্বপ্নকে মোটেই খাটো করবে না। সর্বশেষ ২৬ বছর আগে কোপা আমেরিকা শিরোপা জয় করেছিল আর্জেন্টিনা। যদিও গত পাঁচ আসরের চারটিতেই তারা ফাইনালে খেলেছে।