জেলা আইন-শৃঙ্খলা কমিটির সভা : গত মাসের তুলনায় মামলা কম হয়েছে

চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা আইন-শৃঙ্খলা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে বেলা ১১টা থেকে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।
সভায় মাদক, শহর পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখতে এবং সৌন্দর্য বর্ধনে বিলবোর্ড অপসারণ, শিবগঞ্জ বাজারের মনাকষা মোড়ের যানজট নিরসনে ব্যবস্থা গ্রহণ, আম নিয়ে নেতিবাচক সংবাদ পরিবেশন না করা, বাসে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করা হলে মোবাইল কোর্ট করাসহ জেলার সার্বিক আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করা হয়।
জেলা প্রশাসক এ জেড এম নূরুল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য দেন জেলা আইন-শৃঙ্খলা কমিটির উপদেষ্টা চাঁপাইনবাবগঞ্জ-১ (শিবগঞ্জ) আসনের সংসদ সদস্য ডা. সামিল উদ্দিন আহমেদ শিমুল।
জেলা পুলিশের কঠোর নিরাপত্তা বলয় তৈরির কারণে এবার বেশ ভালোভাবেই মানুষ ঈদুল ফিতর উদ্্যাপন করেছে। জেলা প্রশাসনের ভূমিকাও ছিল অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। কানসাট আমবাজার সম্প্রসারণ বা স্থানান্তর বিষয় নিয়ে আলোচনাকালে ডা. শিমুল বলেন- “কানসাটে যানজট এড়াতে একটি নির্দিষ্ট জায়গায় আমবাজার স্থাপনের জন্য মাননীয় মন্ত্রী এবং প্রধানমন্ত্রীর সাথেও কথা বলেছি। তারা আমাকে বলেছেন, জায়গা নির্ধারণ করলে অর্থ বরাদ্দ দেবেন। কিন্তু সরকারি জায়গা পাওয়া যাচ্ছে না। যতদিন জায়গা না পাওয়া যায়, ততদিন কানসাট রাজারবাড়ি মাঠে আমবাজার বসানো যেতে পারে।” এ সময় তিনি জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসনকে শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখায় ধন্যবাদ জানান এবং সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় একটি সুন্দর চাঁপাইনবাবগঞ্জ গড়ার আহ্বান জানান।
অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মাহবুব আলম খান জানান, এ মাসে মাদক সংক্রান্ত মামলা হয়েছে ১০১টি। এর মধ্যে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে ৬৮ এবং চোরাচালান আইনে মামলা হয়েছে ৩৩টি। তিনি আরো জানান, আইন-শৃঙ্খলা কমিটির গত সভার পর থেকে এ পর্যন্ত মামলা কম হয়েছে।
সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন, সিভিল সার্জন সাইফুল ফেরদৌস মো. খায়রুল আতাতুর্ক, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মাহবুব আলম খান, চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম, শিবগঞ্জ পৌরসভার মেয়র এ আর এম আজরী মোহা. কারিবুল হক রাজিন, নাচোল পৌরসভার মেয়র আব্দুর রশিদ খান, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মোখলেশুর রহমান, শিবগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান সৈয়দ নজরুল ইসলাম, ভোলাহাট উপজেলা চেয়ারম্যান রাব্বুল হোসেন, নাচোল উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল কাদের ও উপজেলা নির্বাহী অফিসারগণসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।