যুক্তরাজ্যে মে’র উত্তরসূরি হতে প্রতিদ্বন্দ্বীদের দৌড়ঝাঁপ

ইংল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে’র উত্তরসূরি হতে প্রতিদ্বন্দ্বীরা শনিবার তাদের প্রচারণা শুরুর প্রস্তুতি নিচ্ছেন। তবে এতে ব্রেক্সিট প্রক্রিয়াটি অনিশ্চয়তার মধ্যে পড়ে গেছে। মে শুক্রবার অশ্রুসিক্ত চোখে পদত্যাগের ঘোষণা দেন। এতে ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে ইংল্যান্ডের বের হওয়ার প্রক্রিয়াটি অনিশ্চিত হয়ে পড়ল। এর ফলে সুনির্দিষ্ট শর্ত বা চুক্তি ছাড়াই কয়েক মাসের মধ্যে ইংল্যান্ড জোটটি থেকে ছিটকে যাওয়ার আশঙ্কার মধ্যে পড়ে গেল। খবর বার্তা সংস্থা এএফপির।
মে’র এই পদত্যাগের ফলে দুই মাসের মধ্যে তার উত্তরসূরি হতে প্রার্থীদের মধ্যে নিশ্চিতভাবেই প্রতিযোগিতা শুরু হয়ে গেছে। কনজারভেটিভ দলের নেতা হিসেবে মে ৭ জুন পদত্যাগ করবেন। তবে ২০ জুলাই পার্টির সদস্যরা তার উত্তরসূরি নির্বাচন না করা পর্যন্ত তিনি অন্তর্বর্তী প্রধানমন্ত্রী থাকবেন।
ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে ব্রিটেনের বের হওয়ার কথা রয়েছে ৩১ অক্টোবর। তবে নতুন নেতা এই প্রক্রিয়াকে আরো বিলম্বিতও করতে পারেন। সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী বোরিস জনসন ও সাবেক ব্রেক্সিট মন্ত্রী ডোমিনিক রাব ব্রেক্সিটের ব্যাপারে প্রত্যাশা অনুযায়ী চুক্তি না হওয়ায় পদত্যাগ করেন। ব্রেক্সিট ইস্যু জেরে সৃষ্ট রাজনৈতিক সংকটের মধ্যে তারা পদত্যাগ করেন। এই ইস্যুতে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে তাদের বড় ধরনের মতবিরোধ দেখা দিয়েছিল।
তবে মে’র উত্তরসূরি পার্লামেন্টে মে’র মতো সামান্য সংখ্যাগরিষ্ঠতাই পাবেন। কারণ ইউরোপীয় ইউনিয়নের বিচ্ছেদ চুক্তির শর্ত পরিবর্তনের কোনো ইচ্ছে নেই এবং এই শর্তগুলোর কারণে ব্রিটিশ এমপিরা তিন দফা প্রস্তাবটি ফিরিয়ে দিয়েছেন। ব্রেক্সিটের পক্ষে-বিপক্ষে কেউই আর একটুও ছাড় দিতে ইচ্ছুক নয়। ব্রিটেনের প্রধান বিরোধী দল লেবার পার্টির নেতা জের্মি কোর্বিন বলেন, যেই কনজারভেটিভ পার্টির প্রধান নির্বাচিত হবেন তাকে অবিলম্বে সাধারণ নির্বাচনের আহ্বান জানাতে হবে। কিন্তু সেটাও একটি ঝুঁকিপূর্ণ পদক্ষেপ হবে। কারণ সোমবার ইউরোপীয় পার্লামেন্ট নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশিত হবে। সেখানে ব্রেক্সিট ইস্যুটিই প্রাধান্য বিস্তার করবে।
রাব, পররাষ্ট্রমন্ত্রী জেরে মি হান্ট ও পরিবেশমন্ত্রী মাইকেল গোভ কনজারভেটিভ পার্টির প্রধান হওয়ার দৌড়ে প্রার্থী হবেন বলে আশা করা হচ্ছে। কনজারভেটিভ পার্টির ১ লাখ সদস্য যুক্তরাজ্যের পরবর্তী প্রধানমন্ত্রীকে নির্বাচিত করবেন। মে তার দলের স্থানীয় শাখায় জানান, তিনি পার্লামেন্টে এমপি হিসেবে থাকবেন।