ভারতের ঘোজাডাঙ্গায় ধর্মঘট, ভোমরায় আমদানি-রপ্তানি বন্ধ

ভারতের ঘোজাডাঙ্গা স্থলবন্দরে ধর্মঘটের কারণে সাতক্ষীরার ভোমরা স্থল বন্দর হয়ে দুই দেশের আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম বুধবার দ্বিতীয় দিনের মত বন্ধ ছিলো। ভোমরা স্থল বন্দর সিঅ্যান্ডএফ অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি আরাফাত হোসেন জানান, আগের দিনের (গত মঙ্গলবার) মত বুধবার দুপুর থেকে ভোমরা বন্দরে কোনো পণ্যবাহী ট্রাক প্রবেশ করেনি। তিনি বলেন, চলতি সপ্তাহে ভারতীয় কাস্টমসের নির্দেশে ঘোজাডাঙ্গা শুল্কস্টেশনে অনলাইনে (ডিজিটাল পদ্ধতিতে) দাপ্তরিক কার্যক্রম শুরু হয়। ঘোজাডাঙ্গা সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট কর্মচারী ও কার্গো ওয়েল ফেয়ার বলছে, কম জনবল ও অদক্ষ টেকনিশিয়ান দিয়ে এ কার্যক্রম শুরু করায় প্রচুর সময় ক্ষেপন হচ্ছে। আগে যেখানে প্রতিদিন ৩/৪’শ পণ্যবাহী ট্রাক বন্দরে প্রবেশ করতো সেখানে এখন দিনে ৫০/ ৬০ টির বেশি ঢুকছে না বন্দরে। এর প্রতিবাদে ঘোজাডাঙ্গা সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট কর্মচারী ও কার্গো ওয়েল ফেয়ার ইউনিয়ন চার দিনের ধর্মঘটের ডাক দেয় বলে আরাফাত জানান। এদিকে ধর্মঘটের কারণে সরকার প্রতিদিন সাড়ে তিন থেকে চার কোটি টাকার রাজস্ব হারাচ্ছে বলে ভোমারা শুল্ক স্টেশনের রাজস্ব কর্মকর্তা বিকাশ চন্দ্র দেবনাথ জানান।