টানা তাপপ্রবাহের অবসান, ঝড়ে আমের ক্ষতি

টানা তাপপ্রবাহের পর গত সোমবার (১৩-০৫-২০১৯) রাতের ভারী বৃষ্টি জনজীবনে স্বস্তি এনে দিয়েছে। তবে চাঁপাইনবাবগঞ্জের উপর দিয়ে বয়ে যাওয়া কালবৈশাখী ঝড়ে আমের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। জেলার সদর উপজেলার ওপর দিয়ে বয়ে যাওয়া ঝড়ে বিপুল পরিমাণ আম ঝরে পড়ার পাশাপাশি ভেঙে পড়েছে আমগাছ। ঝরে পড়া আম চাঁপাইনবাবগঞ্জের বাজারে বিক্রি হয়েছে পানির দরে।
চাঁপাইনবাবগঞ্জ কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর জানিয়েছে, সোমবার রাতে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলায় ঝড় আঘাত হানে। বৃষ্টির সঙ্গে বয়ে যাওয়া কালবৈশাখী ঝড়ে বড় বড় আম গাছ ভেঙে পড়ে এবং উপড়ে যায়। সেই সঙ্গে ঝরে পড়ে বিপুল পরিমাণ আম। প্রায় দশ দিনের প্রচন্ড তাপপ্রবাহের পর এই ঝড়ের কারণে অনেক বেশি আম ঝরে পড়েছে সদর উপজেলায়।
সদর উপজেলা কৃষি অফিসার ড. জাহাঙ্গীর ফিরোজ জানিয়েছেন, কালবৈশাখী ঝড়ে ১০ থেকে ১৫ ভাগ আম ঝরে পড়েছে।
শিবগঞ্জের আমচাষী ভঞ্জন কুমার দাস জানান, হাল্কা বাতাসে বেশ কিছু আম ঝরে পড়ে। আমচাষী আহসান হাবিব জানান, ঝড়ের কবলে পড়েনি শিবগঞ্জ। ফলে এখানে কোনো ক্ষয়ক্ষতি হয়নি।
তবে সদর উপজেলার বিভিন্ন স্থানে ঝড়ের আঘাতে ব্যাপক আম ঝরে পড়েছে। চাঁপাইনবাবগঞ্জ আঞ্চলিক উদ্যানতত্ত্ব গবেষণা কেন্দ্রে গিয়ে দেখা যায় প্রচুর পরিমাণে আম পড়ে রয়েছে।
জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মঞ্জরুল হুদা বলেন- এসময়ে প্রতিবছরই ঝড়ঝাপ্টা হয়। সোমবার রাতে যে পরিমাণ আম ঝরে পড়েছে তাতে উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা ব্যাহত হবে না।
এদিকে ঝড়ের সঙ্গে কোনো কোনো এলাকায় ভারী বৃষ্টিও হয়েছে। তিন উপজেলায় গড় বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে ৩৮ মিলিমিটার।