ফখরুল ছাড়া শপথ নিলেন বিএনপির সবাই

অবশেষে সমস্ত জল্পনা কল্পনার অবসান ঘটিয়ে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি থেকে নির্বাচিত ৪জন সংসদ সদস্য শপথ গ্রহণ করেছেন। তবে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর শপথ নেন নি।
সোমবার (২৯-০৪-২০১৯) বিকেল সাড়ে ৫টায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ (সদর) আসনের হারুনুর রশীদ, চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ (নাচোল-গোমস্তাপুর-ভোলাহাট) আসনের আমিনুল ইসলাম, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আসনের আবদুস সাত্তার ভুঁইয়া ও বগুড়া-৪ আসনের মোশাররফ হোসেন শপথগ্রহণ করেন। স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী তাঁদের শপথবাক্য পাঠ করান। দলটির মহাসচিব সোমবার রাতে সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছেন দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নির্দেশেই বিএনপির সংসদ সদস্যরা শপথ নিয়েছেন। শপথগ্রহণ শেষে হারুনুর রশীদও সাংবাদিকদের একই কথা বলেছেন।
উল্লেখ্য, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এবার বিএনপি থেকে নির্বাচিত হয়েছেন ৬ জন। এঁদের মধ্যে ঠাকুরগাঁও-৩ আসনের জাহিদুর রহমান গত ২৫ এপ্রিল বৃহস্পতিবার শপথ গ্রহণ করেন। বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ছাড়া বাকি ৫ জনই সংসদ সদস্য হিসেবে শপথগ্রহণ করলেন। শপথ গ্রহণের সময়সীমার শেষ দিনে এসে শপথ নিলেন তারা।
গত বছরের ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট গঠন করে নির্বাচন করে বিএনপি। এ জোট থেকে মোট আটজন নির্বাচিত হন। এর মধ্যে গণফোরামের দুজন আগেই শপথ নিয়েছেন।
দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নির্দেশেই বিএনপির সংসদ সদস্যরা শপথ নিয়েছেন বলে জানিয়েছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। সোমবার বিকালে বিএনপি থেকে নির্বাচিত চারজনের শপথ নেওয়ার পর নানামুখী আলোচনার মধ্যে রাতে এক সংবাদ সম্মেলনে এসে একথা জানান তিনি। শপথ নিয়ে হারুনুর রশীদও বলেছিলেন, তারা তারেক রহমানের নির্দেশেই শপথ নিয়ে সংসদে যাচ্ছেন। ফখরুল আরও বলেন, রবিবার দলের স্থায়ী কমিটির বৈঠকে দলের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষমতা ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে দেওয়া হয়েছে।
সোমবার বিকেলে শপথগ্রহণ শেষে সংসদ ভবনের বাইরে চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ আসন থেকে নির্বাচিত বিএনপির সংসদ সদস্য মো. হারুনুর রশীদ সাংবাদিকদের বলেন, খালেদা জিয়াসহ দলীয় নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে যে মামলার জট রয়েছে, সবকিছুর বিরুদ্ধে সংসদে আইনি লড়াই চালিয়ে যাওয়া হবে।