চাঁপাইনবাবগঞ্জ আমনুরা-সড়ক দুর্ভোগ লাঘবে কয়েক মাস অপেক্ষা চলাচলকারীদের

খানাখন্দে ভরা চাঁপাইনবাবগঞ্জ-আমনুরা সড়ক। এর মধ্যে প্রায় ৭ কিলোমিটার সড়কের অবস্থা শোচনীয়। এ সড়ক দিয়ে যাতায়াতকারীদের প্রতিনিয়তই দুর্ভোগের মধ্যে দিয়ে চলতে হয়। দুর্ভোগের লাঘব হতে চলেছে এ সড়কে যাতায়াতকারীদের। তবে তার জন্য কয়েক মাস অপেক্ষা করতে হবে। চাঁপাইনবাবগঞ্জ সড়ক ও জনপথ বিভাগ চাঁপাইনবাবগঞ্জ-আমনুরা সড়কের সাড়ে ৬ কিলোমিটার সড়ক দুই পাশে ড্রেনসহ নির্মাণ কাজ শুরু করেছে। দুটি প্যাকেজে এ কাজ চলছে। এর মধ্যে প্রথম প্যাকেজের ড্রেন নির্মাণ কাজের প্রায় ৮০ ভাগ সম্পন্ন হয়েছে। চলতি মাসেই প্রথম প্যাকেজের সড়কের কাজ শুরু হবে বলে আশা করছে সড়ক ও জনপথ বিভাগ।

সড়ক ও জনপথ বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, চাঁপাইনবাবগঞ্জ-আমনুরা সড়কে আতাহার বুলনপুরে এরফান গ্রুপের কার্যালয়ের সামনে থেকে ডাকাতের বাথান পর্যন্ত দুটি প্যাকেজে সরকারি অর্থায়নে মোট সাড়ে ৬ কিলোমিটার সড়কের কাজ করা হবে। কাজের মধ্যে রয়েছে ইন্টারসেকশনসহ রিজিড পেভমেন্ট নির্মাণ, পেভমেন্ট পুনর্নির্মাণ, মুজবতীকরণ, সার্ফেসিং এবং সড়কের দুই পাশে আর সি সি ইউ ড্রেন নির্মাণ। যৌথভাবে প্রথম প্যাকেজের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান হচ্ছে- মো. আমিনুল হক (প্রা.) লিমিটেড ও মো. ময়েন উদ্দিন (বাঁশি)। প্রথম প্যাকেজের প্রাক্কলিত মূল্য হচ্ছে ১৯ কোটি ৮১ লাখ ৯৩ হাজার ৩১৬ দশমিক ৬৯১ টাকা। চুক্তিমূল্য ১৭ কোটি ৮৩ লাখ ৭৩ হাজার ৯৮৫ দশমিক ০২২ টাকা। প্যাকেজ নং- ডব্লিউপি-২৮।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ-আমনুরা সড়কে নয়ানগর সেতু অটোরাইস মিল থেকে দ্বিতীয় প্যাকেজের আওতায় ড্রেন নির্মাণ কাজ শুরু হয়েছে। সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের সাইট ইঞ্জিনিয়ার মাইনুল ইসলাম গৌড় বাংলাকে জানান, বর্ষার আগে যতটুকু সম্ভব ড্রেন নির্মাণের কাজ করা হবে। বর্ষা শেষ হলে সড়ক নির্মাণসহ অন্যান্য কাজ পুরোদমে শুরু হবে।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ সড়ক বিভাগের উপ-সহকারী প্রকৌশলী মো. শাওন ইসলাম গৌড় বাংলাকে বলেন, প্রথম প্যাকেজে ড্রেন নির্মাণের কাজ প্রায় ৮০ ভাগ সম্পন্ন হয়েছে। শিগগিরই ড্রেন নির্মাণের বাকি কাজ শেষ হবে। চলতি মাসেই সড়ক নির্মাণের কাজ শুরু করা যাবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি। শাওন ইসলাম বলেন, প্রথম প্যাকেজে ১ হাজার ১০০ মিটার এবং দ্বিতীয় প্যাকেজে প্রায় ১ হাজার মিটার কংক্রিটের সড়ক হবে।