ডিজেআই নিরাপত্তা বাড়ালো ড্রোনে

এয়ারপোর্টের আশপাশে ড্রোন ওড়ানো ঠেকাতে প্রযুক্তি উন্নত করেছে ডিজেআই।
২০১৮ সালের ডিসেম্বরে যুক্তরাজ্যের গ্যাটউইক এয়ারপোর্টে ড্রোন ওড়ানোর ঘটনায় অনেকগুলো ফ্লাইট বিলম্বিত হয়। এরপরই নিজেদের পণ্যে প্রযুক্তিগত পরিবর্তন আনলো ডিজেআই।
এয়ারপোর্টের রানওয়ে এবং অন্যান্য সংবেদনশীল এলাকার ৩ডি জোন বানাবে ডিজেআই। এই জোনগুলোতে উড়তে পারবে না প্রতিষ্ঠানের ড্রোন– খবর বিবিসি’র।
ডিজেআইয়ের মূল জিও-ফেন্সিং ব্যবস্থার আওতায় থাকা ১৩টি ইউরোপিয়ান দেশে নতুন প্রযুক্তি চালু কবে প্রতিষ্ঠানটি। এ ছাড়া আগে এই নিরাপত্তা ব্যবস্থা ছিলো না এমন ১৯টি দেশেও এটি চালু করা হবে।
ডিজেআইয়ের পক্ষ থেকে বলা হয়, নতুন ব্যবস্থা এয়ারপোর্টে ড্রোন ওড়ানোর ঝুঁকি কমাবে এবং এয়ারপোর্টের পার্শবর্তী এলাকায় ড্রোন ওড়ানোর জন্য সহায়ক হবে।
ডিজেআইয়ের নীতিমালা প্রধান ক্রিস্টিয়ান স্ট্রু বলেন, “ইউরোপিয়ান ড্রোন শিল্প যখন এটিকে উদ্ভাবনের নতুন পন্থার দিকে নিয়ে যাচ্ছে এবং আরও বেশি কার্যকরভাবে ব্যবহার করছে তখন ডিজেআই নিশ্চিত করতে চায় যে নিরাপত্তার বিষয়টি যাতে বেশি প্রাধান্য পায়।”
চলতি মাসের শেষ দিকে নতুন আপডেট চালু করবে ডিজেআই। নতুন নিরাপত্তা ব্যবস্থা পেতে ফ্লাইট কন্ট্রোল অ্যাপ ও এয়ারক্রাফট সফটওয়্যার আপডেট করতে হবে গ্রাহককে।
২০১৩ সালে প্রথমবারের মতো এয়ারপোর্টের জন্য নো-ফ্লাই জোন তৈরি করে ডিজেআই। ২০১৬ সালে জিও-ফেন্সিং প্রযুক্তি উন্মোচন করে প্রতিষ্ঠানটি। এবার এই নিরাপত্তা ব্যবস্থাকেই আরও উন্নত করছে তারা। পরবর্তীতে নো-ফ্লাই জোনে জেলখানা ও পারমাণবিক পাওয়ার প্ল্যান্টও যোগ করেছে ডিজেআই।
জিপিএস এবং অন্যান্য ন্যাভিগেশনাল স্যাটেলাইট সিগনালের মাধ্যমে সংবেদনশীল জায়গাগুলোতে ড্রোন ওড়াতে বাধা দেবে নতুন নিরাপত্তা ব্যবস্থাটি। নতুন এই প্রযুক্তিটি বানিয়েছে যুক্তরাজ্যের অ্যালটিচুড অ্যাঙ্গেল।