এশিয়ায় নারীর ক্ষমতায়নে দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ < ড. চিত্রলেখা নাজনীন>

চাঁপাইনবাবগঞ্জ স্থানীয় সরকারের উপ-পরিচালক ড. চিত্রলেখা নাজনীন বলেছেন, নারীর ক্ষমতায়নে বাংলাদেশ দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে। নারী উন্নয়ন ও নারীর ক্ষমতায়নে বাংলাদেশ এখন এশিয়া মহাদেশে এক বিস্ময়। তবে দু:খের বিষয় হচ্ছে, সারাদেশের নারীরা যখন শিক্ষায়-দীক্ষায় এগিয়ে যাচ্ছে তখন এই চাঁপাইনবাবগঞ্জের নারীরা বাল্যবিয়ের কারণে পিছিয়ে থাকছে।
সোমবার সকালে ইউনিয়ন কিশোর-কিশোরী ক্লাবের সদস্যদের কার্যকরি করতে উদ্বুদ্ধকরণ কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি কথাগুলো বলেন। অভিভাবকদের উদ্দেশে ড. নাজনীন আরো বলেন- মেয়েকে বাড়ি থেকে বের হতে নিষেধ না করে ছেলেকে বলেন সে যেন বাইরে গিয়ে মেয়েদের উত্ত্যাক্ত না করে।
সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আলমগীর হসেনের সভাপিতত্বে অনুষ্ঠিত কর্মালায় তিনি আরো বলেন-শুধু বাল্যবিয়ে একমাত্র সমস্যা নয়- সমস্যা আরো আছে। তাহলে- অভিভাবকদের অসচেতনতা, কুসংস্কার, ইভটিজিং, দরিদ্র্যতা ইত্যাদি। ড. চিত্রলেখা নাজনীন আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেন- পিছিয়ে পড়াদের সামনে এগিয়ে নিতে যেসব কুশোর-কিশোরী ক্লাব করা হয়েছে, সেসব ক্লাবের কিশোর-কিশোরীরা সমাজ পরিবর্তনে অগ্রণী ভূমিকা পালন করবে। কিশোর-কিশোরীদের সচেতন করতে হবে, আজ তোমরা এখানে এ বিষয়ে জানলে, তোমরা তোমাদের সহপাঠী, তোমার এলাকায় গিয়ে সবার মাঝেই বিষয় গুলো ছড়িয়ে দেবে।
ইউনিসেফের সহযোগিতায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলা প্রশাসন আয়োজিত দিনব্যাপী এ কর্মাশালায় তিনি আরো বলেন- ছেলে মেয়েদের সমান অধিকার নিশ্চিত করতে হবে, পরিবারে ছেলেটির যেমন মতামত দেয়ার অধিকার আছে, মেয়েটিও মতামত দেয়ার অধিকার রাখে।
সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত কর্মশালায় আরো বক্তব্য দেন, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোখলেশুর রহমান, মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর রাজশাহীর উপ-পরিচালক শবনাম শিরিন, জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা সাহিদা আখতার, ইউনিসেফ রাজশাহীর প্রোগ্রাম অফিসার বেগম জেরিনা রেশমা ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা এলজিসি অফিসার শরিফা খাতুন।
কর্মশালায়, বিভিন্ন ইউনিয়ন ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রায় ৫০ শিক্ষার্থী অংশ নেন।
কর্মশালায় জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন, বাল্যবিয়ে, শিক্ষা-স্বাস্থ্য, শিক্ষার্থী ঝরে পড়া, কিশোর-কিশোরীদের ১৫টি আচরণগত পরিবর্তন বিষয়ে আলোচনা, কিশোর-কিশোরী ক্লাবের সদস্যদের করণীয়সহ নানান বিষয়ে আলোচনা করা হয়।