সরকারি শিশু পরিবারের শিশুদের পাশে দাঁড়াতে জেলা প্রশাসকের আহবান

চাঁপাইনবাবগঞ্জে সরকরি শিশু পরিবার (বালিকা)এর শিশুদের মাঝে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ করা হয়েছে। শহরের স্বরূপনগরে শিশু পরিবার প্রাঙ্গনে রবিবার বিকেলে প্রধান অতিথি হিসেবে পুরস্কার বিতরণ করেন জেলা প্রশাসক এ জেড এম নূরুল হক। এ উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি শিশু পরিবারের সদস্যদের শিক্ষা দিক্ষায় সঠিকভাবে গড়ে তুলতে সকলের সহযোগিতা কামনা করে শিশুদের উদ্দেশ্যে বলেন-ক্লাসের পড়াশোনার পাশাপাশি তোমাদের খেলাধুলা করতে হবে। তোমরা নিজেরদের কখনই এতিম ভাববে না। আমরা সবাই তোমাদের পাশে আছি। তিনি পিতা মাতার আদর স্নেহ বঞ্চিত এসব শিশুদের পাশে দাঁড়াতে সকলের প্রতি আহবান জানান।
জেলা সামজ সেবা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক নূর মোহাম্মদের সভাপতিত্বে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম। তিনি এ শিশুদের জন্য স্কুল পোশাসক ও প্রয়োজনে বইপত্র দেওয়ার ঘোষণা দেন। আরো বক্তব্য দেন, জেলা ক্রীড়া অফিসার আক্তারুজ্জামান রেজা তালুকদার, পৌর কাউন্সিলর ও সরকারি এ শিশু পরিবারের ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্য মতিউর রহমান মটন মিঞা, সাবেক কাউন্সিলর ওই ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্য শরিফা খাতুন বেবী। অনষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন শিশু পরিবারের উপ-তত্ত্বাবধায়ক মোছা. আইনিন পারভীন।
উল্লেখ্য, ১৯৭৩ সালে ২ একর জমির উপর এতিম খানা নামে এসব শিশুদের নিয়ে সরকারিভাবে যাত্রা শুরু করে সরকারি শিশু পরিবারের যাত্রা শুরু হয়। পরে এতিমখানা নামটি বাদ দিয়ে সরকারি শিশু পরিবার (বালিকা) রাখায়। এ পরিবারে বসবাসকারীদের বলা হয় নিবাসী। অনুমোদিত নিবাসীর আসন সংখ্যা ৯০, অনুমোদিত বৃদ্ধা নিবাসীর সংখ্যা ১০ জন, বর্তমানে নিবাসী সংখ্যা ৮৬ জন, বর্তমানে বৃদ্ধার সংখ্যা ১ জন, এ পর্যন্ত ভর্তিকৃত নিবাসী সংখ্যা ৭৫৪ জন। নিবাসী বালিকারা বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে লেখাপড়া করছেন।