সমাজসেবা কমপ্লেক্স এর ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন

বয়স্ক ও বিধবাভাতা, প্রতিবন্ধী ভাতা, চিকিৎসা ভাতা (কিডনী), হিজড়া, বেদে অনগ্রসর জনগোষ্ঠীদের প্রশিক্ষণ, বিশেষ ভাতা, শিক্ষা উপবৃত্তি প্রদান, প্রতিবন্ধীদের বিনামূল্যে ফিজিওথেরাপী দেওয়া, সরকারি শিশুদের প্রতিপালন করা সরকারি প্রতিষ্ঠান সমাজ সেবা অধিদপ্তর, চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা সদরের সবকটি কার্যালয়কে একই ছাদের নিচে নিয়ে আসা হচ্ছে। সেবাসহজিকরণের লক্ষে সরকারিভাবে এ উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা শহরের স্বরূপনগরে সরকারি শিশু পরিবারের ক্যাম্পাসে জেলা সমাজসেবা কমপ্লেক্স নির্মাণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনও করা হয়েছে।
গতকাল শনিবার ৬ তলা এ-কমপ্লেক্স ভবন নির্মাণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধন করেন এবং এ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন সমাজ কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. জিল্লার রহমান। অনুষ্ঠানে জানানো হয়, এ কমপ্লেক্স নির্মাণে ব্যয় হবে ১২ কোটি টাকা। সম্পূর্ণ সরকারি বাজেটে এ প্রকল্পের কাজ সম্পন্ন করা হবে। ৬ তলা এ ভবনের আয়তন ৩৬ হাজার ৭শ বর্গফুট। প্রতিটি ফ্লোরের আয়তন ৬ হাজার ১শ ৫০ বর্গফুট। এ ভবনের ১ম তলায় রিসিপশন, অটিজম কর্ণার, ওয়েটিং রুম, কনসালটেন্ট ফিজিওথ্যরাপিস্ট, ডে-কেয়ার ও ক্যাাফেটেরিয়া। ২য় তলায় উপ-পরিচালকের অফিস কক্ষ ও অন্যান্য অফিসারদের কক্ষ, সম্মেলন কক্ষ। ৩য় তলায় শহর সমাজসেবা কার্যক্রম (ইউসিডি), টেকনিক্যাল ট্রেনিং সেন্টার। ৪র্থ ও ৫ম তলায় ক্লাস রুম, টিচারস্ রুম, লাইব্রেরী। ৬ তলায় থাকছে বড়ধরনের সম্মেলন কক্ষ।
জেলা সমাজসেবা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক নূর মোহাম্মদের সভাপতিত্বে আয়োজিত আলোচনা অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন, প্রকল্প পরিচালক (যুগ্ম সচিব) মো. জাহাঙ্গীর আলম ও বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন, জেলা প্রশাসক এ জেড এম নূরুল হক। এ-সময় উপস্থিত ছিলেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আলমগীর হোসেন, জেলা গণপূর্ত বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী আবদুছ ছালাম মোল্লা।
সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. জিল্লার রহমান বলেন, “৬৪ জেলায় সমাজসেবা কমপ্লেক্স নির্মাণ শীর্ষক প্রকল্প” এর ১ম পর্যায়ে ২২টি জেলায় এ কমপ্লেক্স নির্মাণের কাজ অচিরেই শুরু হবে এবং পরবর্তীতে দেশের ৬৪টি জেলায় একই কমপ্লেক্স নির্মাণ করা হবে। তিনি জানান, চাঁপাইনবাবগঞ্জে সর্বপ্রথম প্রকল্পের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করা হল। সরকারের চলমান উন্নয়নেরই ধারা এটি।
এছাড়াও তিনি আরও কিছু সুসংবাদ দিয়ে বলেন- সরকার দেশের প্রবীণদের জন্য বিশেষ সুযোগ-সুবিধার ব্যাবস্থা করতে যাচ্ছে। দেশের সকল প্রবীণদের জন্য “সিনিয়র সিটিজেন কার্ড” দেওয়া হবে। যেন ওই সকল প্রবীণ লোক যেকোনো যানবাহনে ১ম শ্রেণির আসন পায়। এছাড়াও আরো ১০-১২টি বিশেষ সুযোগ-সুবিধা পাবে যারা সিনিয়র সিটিজেন কার্ড পাবেন।

SHARE