শিবগঞ্জে পর্নগ্রাফি মামলায় গ্রেপ্তার ১, আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দী

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার সোনামসজিদ এলাকায় পর্নগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনে দায়ের করা মামলায় আলালকে (২৯) নামে একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃত আলাল- সোনামসজিদ বালিয়াদিঘি এলাকার হুমায়ন আলীর ছেলে। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা অনুপ কুমার জানান, পর্নগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়েরের পর থেকে অভিযুক্ত আলাল আত্মগোপনে ছিলেন। মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে সোনামসজিদ স্থলবন্দরের জিরো পয়েন্ট এলাকা থেকে আলালকে গ্রেপ্তার করা হয়। বুধবার দুপুরে তাকে চাঁপাইনবাবগঞ্জ চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের আমলী আদালত, শিবগঞ্জের বিচারক মোস্তফা কামালের নিকট সোপর্দ করা হলে আলাল ১৬৪ ধারায় জবানবন্দী দেন। এছাড়াও মামলা দায়েরের দিন অপর অভিযুক্ত ব্যক্তি সোনামসজিদ বালিয়াদিঘি পূর্বপাড়ার সাবেরের ছেলে সামিউলকে গ্রেপ্তার করা হয়।
সোনামসজিদ এলাকার এক গৃহবধূ বাদী হয়ে গোসলের আপত্তিকর ভিডিও গোপনে ধারণ করে সামাজিক মর্যাদায় হানী এবং ভয়ভীতির মাধ্যমে চাঁদা আদায় ও মানসিকভাবে নির্যাতনের অভিযোগ এনে দুজনের বিরুদ্ধে শিবগঞ্জ থানায় পর্নগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনে একটি মামলা দায়ের করেন। এজাহারে উল্লেখ করেন- দম্পতি বাথরুমে গোসলের আপত্তিকর ভিডিও গোপনে ধারণ করে সোনামসজিদ বালিয়াদিঘি এলাকার সামিউল ও আলাল। পরে চাঁদা না দিলে আপত্তিকর ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইন্টারনেটের মাধ্যমে ফেসবুক, ইউটিউবে ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি দেন অভিযুক্তরা।