নাশকতা-সহিংসতা কঠোর হস্তে প্রতিহত করা হবে : পুলিশ সুপার মোজাহিদ

চাঁপাইনবাবগঞ্জের পুলিশ সুপার টি এম মোজাহিদুল ইসলাম বলেছেন-আগামী ৩০ ডিসেম্বর নির্বাচন। এই নির্বাচনকে ঘিরে আমরা কোনো অস্থিরতা চাই না। শান্তি বজায় রাখতে যে কোনো নাশকতা, সহিংসতা, জ্বালাও পোড়াও করতে দেয়া হবে না, জীবন দেব তবু ২০১৩-২০১৪ সাল ফিরে আসতে দেব না, মানুষের শান্তি বিনষ্টকারীদের কঠোরহস্তে প্রতিহত করা হবে। এ জন্য চাঁপাইনবাবগঞ্জের পুলিশ পরিপূর্ণভাবে তৈরি।
গতকাল শনিবার জেলা পুলিশে কর্মরত এবং অবসরপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধা পুলিশ সদস্যদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।
জেলা পুলিশ লাইন্স মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে মহান মুক্তিযুদ্ধের বীর মুক্তিযোদ্ধাদের উদ্দেশ্যে পুলিশ সুপার বলেন, আপনারা লড়াই করে এদেশকে স্বাধীন করেছেন, সেজন্য আমি আপনাদের সম্মান করি। কারণ, বাংলাদেশ স্বাধীন না হলে আমি এসপি হতে পারতাম না, আমার মতো অনেকেই হতে পারতেন না। বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছিল বলেই আজ আমি এসপি। আমি আপনাদের নিয়ে গর্বিত। আমি মুক্তিযুদ্ধ দেখিনি, কারণ, আমার জন্ম স্বাধীন বাংলাদেশে ১৯৭৪ সালে। কিন্তু আমি আপনাদের ত্যাগের কথা অনুভব করি। আপনারা জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান। জাতি আপনাদের চিরকারল স্মরণ করবে।
তিনি বলেন-আপনারা যখন পুলিশে চাকরি করেছেন তখন পোশাক পেয়েছেন একসেট, আর এখন আমরা পাচ্ছি তিনসেট। শুধু নয়-আরো অনেক সুযোগ সুবিধা আমরা পাচ্ছি। শুধু কি তাই, দেশের সকল সেক্টরে অভূতপূর্ব উন্নয়ন হয়েছে। আর হয়েছে বলেই পাকিস্তানের বর্তমান প্রেসিডেন্টকে সেদেশের মানুষ বলেছেন সুইজারল্যান্ডের উদাহরণ নয়-বাংলাদেশের উদাহরণ দেন। কারণ, বাংলাদেশ গত ১০ বছরে পাকিস্তান থেকে বহুগুণ এগিয়ে গেছে। আমরা কী শুধুই নিব-না কী আমাদেরও দেয়ার কিছু আছে। অঅমাদের উন্নয়নের সাথে থাকতে হবে।
অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা পুলিশের অপরাধ ও প্রশাসন বিভাগের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মাহবুব আলম খান, অবসরপ্রাপ্ত সহকারী পুলিশ সুপার মুক্তিযেদ্ধা হেমায়েত আলী, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব রুহুল আমিন, অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ সদস্য মুক্তিযোদ্ধা মো. রবিউল ইসলাম ও মো. আব্দুল হাকিম। অনুষ্ঠান সঞ্চলনায় ছিলেন সহকারী পুলিশ সুপার (সদর) মো. সাকিব হোসাইন। এ সময় সহকারী পুলিশ সুপার (হেডকোয়ার্টার) আব্দুল হাই সরকার, সহকারী পুলিশ সুপার (ডিএসবি) সানাউল হকসহ অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
পরে ৫৮ জন জলা পুলিশে কর্মরত এবং অবসরপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধা পুলিশ সদস্যকে সংবর্ধনা প্রদান করা হয়।

SHARE