সবজি চাষে অনন্য দৃষ্টান্ত ওসির নিয়ামতপুর থানা চত্ত্বর এখন সবুজের সমারহ

নওগাঁর নিয়ামতপুর থানার চত্বরে সবজি চাষে অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন অফিসার ইন চার্জ তোরিকুল ইসলাম। থানা চত্বর এখন সবুজের সমারোহ। অফিসার ইন চার্জ তোরিকুল ইসলামের নির্দেশনা ও তত্ত্বাবধানে উপ-পরিদর্শক (এসআই) শরিফুল ইসলাম, মুকুল হোসেন (সিনিয়র), সরোয়ার হোসেন, আসাদ, চিত্তরঞ্জন, অজয়, সেরাফত আলী, মুকুল হোসেন (জুনিয়র), সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) রকিবুল ইসলাম এর অক্লান্ত পরিশ্রমে থানা চত্ত্বরকে গড়ে তুলেছেন সবুজে ঘেরা সবজির বাগান।
সবজি বাগানে বেগুন, পিয়াজ, মূলা, লাউ,সিম, শশা, করলাসহ বিভিন্ন জাতের শাক উৎপাদন করছেন। এ সবজি বাগান থেকে প্রতিদিন বিভিন্ন হাট বাজারে শাক সবজির চাহিদা পূরনসহ থানা ব্যাচেলর ম্যাচেও চাহিদা পূরণ করে যাচ্ছে।
এ বিষয়ে অফিসার ইন চার্জ তোরিকুল ইসলাম বলেন, আমি নিয়ামতপুর থানায় যোগদান করার পর দেখি থানার বিশাল এক চত্ত্বর পড়ে রয়েছে বিভিন্ন জঞ্জলে ভরে। যেকানে কেউ চলাফেরা করতে পারে না। অকেজ হয়ে পড়ে পড়েছে। তখন আমি চিন্তা করলাম জায়গা অকেজ হয়ে পড়ে না থেকে যদি কাজে লাগানো যায় তাহলে কেমন হয়। সেই চিন্তা থেকে আমি থানা অন্যান্য অফিসারদের সাথে পরামর্শ করে তাদের সহযোগিতায় এই বিশাল শাক ও সবজি ক্ষেত গড়ে তুলেছি। এখন এখান থেকে প্রতি দিন প্রায় ৮ থেকে ১০ মন সবজি উঠে। সেই সবজি স্থানীয় বাজারগুলোতে বিক্রি করে থানার মসজিদ, যারা পরিচর্যা করে তাদের বেতন এবং অন্যান্য কাজ করা হয়। এখন থানার সবজি বাজার দেখতে অনেকেই আসে এবং মুগ্ধ হয়। নিয়ামতপুর থানার অফিসার ইন চার্জ তোরিকুল ইসলামের সবজি চাষ দেখে এখন এলাকার অনেকেই উদ্বুদ্ধ হয়ে শাক ও সবজি চাষে আগ্রহ দেখাচ্ছেন।

SHARE