নৌকার চূড়ান্ত টিকেট পেলেন ৬ শরিকের ১৬ প্রার্থী

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নিজেদের জন্য ২৪০টি আসন রেখে ৬ শরিক দলের ১৬ প্রার্থীকে নৌকার চূড়ান্ত মনোনয়ন দিয়েছে আওয়ামী লীগ।
এর মধ্যে ১৪ দলীয় জোটের শরিক ওয়ার্কার্স পার্টিকে পাঁচটি, জাসদ (ইনু) তিনটি, জাতীয় পার্টির (জেপি মঞ্জু) দুটি, তরিকত ফেডারেশনকে দুটি এবং জাসদকে (আম্বিয়া) একটি আসন ছেড়ে দিয়েছে আওয়ামী লীগ। আর মহাজোটের শরিক যুক্তফ্রন্টের তিনজন প্রার্থী নৌকা প্রতীক নিয়ে এবারের নির্বাচনে লড়বেন। ঢাকার ধানম-িতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে শুক্রবার সকালে চূড়ান্ত মনোনয়নের চিঠি শরিক নেতাদের কাছে হস্তান্তর করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তবে জোটের বড় শরিক এরশাদের জাতীয় পার্টিকে আওয়ামী লীগ কতটি আসন ছেড়ে দিচ্ছে, তা এখনও জানা যায় যায় নি। ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠেয় নির্বাচনে জাতীয় পার্টির প্রার্থীরা নিজেদের লাঙ্গল প্রতীকেই প্রতিদ্বন্দি¦তা করবেন।
আওয়ামী লীগের ধানম-ি অফিসে এক ব্রিফিংয়ে কাদের বলেন, শরিকদের ৫৫ থেকে ৬০টি ছেড়ে দেওয়া হতে পারে। জাতীয় পার্টিকে ৪০ থেকে ৪২টি আসন দেওয়া হতে পারে। বিষয়টি শুক্রবারই চূড়ান্ত করা হবে। জোটের যারা নৌকার প্রার্থী হলেন-ওয়ার্কাস পার্টি : রাশেদ খান মেনন (ঢাকা-৮), ফজলে হোসেন বাদশা (রাজশাহী-২), মোস্তফা লুৎফুল্লাহ (সাতক্ষীরা-১), টিপু সুলতান (বরিশাল-৩), ইয়াসিন আলী (ঠাকুরগাঁও-৩)। জাসদ: হাসানুল হক ইনু (কুষ্টিয়া-২), শিরীন আখতার (ফেনী-১), রেজাউল করিম তানসেন (বগুড়া-৪)। বিকল্পধারা : এমএ মান্নান (লক্ষ¥ীপুর-৪), মাহী বি চৌধুরী (মুন্সীগঞ্জ-১) ও এফএম শাহীন (মৌলভীবাজার-২) জেপি : আনোয়ার হোসেন মঞ্জু (পিরোজপুর-২), রুহুল আমিন (কুড়িগ্রাম-৪) তরিকত ফেডারেশন : সৈয়দ নজিবুল বশর মাইজভান্ডারী (চট্টগ্রাম-২) ও আনোয়ার খান (লক্ষ¥ীপুর ১)। জাসদ (আম্বিয়া) : মঈনুদ্দিন খান বাদল (চট্টগ্রাম-৮)। যে ১৭টি আসনে আওয়ামী লীগ একাধিক প্রার্থীকে প্রাথমিক মনোনয়ন দেওয়া হয়েছিল, সেসব আসনেও একক প্রার্থীদের চূড়ান্ত মনোনয়নের চিঠি দেওয়া হয়েছে শুক্রবার।

SHARE