জেএমবি সদস্যসহ জেলায় গ্রেপ্তার ৩০ : অস্ত্র ও গান পাউডার উদ্ধার

চাঁপাইনবাবগঞ্জে পুলিশের অভিযানে জেএমবি সদস্যসহ ৩০ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অভিযানে অস্ত্র ও গানপাউডার উদ্ধার করা হয়।  বুধবার দুপুর সোয়া ১২ টায় পুলিশ সুপার কার্যালয়ে আয়োজিত প্রেসব্রিফিংয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মাহবুব আলম খান এ-তথ্য জানিয়েছেন।
প্রেসব্রিফিংয়ে জেলা পুলিশের এ-কর্মকর্তা জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ জানতে পারে, গোমস্তাপুর উপজেলার বেলাল বাজারস্থ একটি আমবাগান এলাকায় টিনের দোচালা ঘরে ৬ থেকে ৭ জন জেএমবি সদস্য নাশকতার পরিকল্পনার জন্য গোপন বৈঠক করছে। এমন তথ্যের ভিত্তিতে জেলা গোয়েন্দা পুলিশের একটি দল গত মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১০ টার দিকে সেখানে অভিযান চালিয়ে মাহফুজুর রহমান ওরফে মোহন (২৮)কে আটক করে। এ-সময় প্লাষ্টিকের ব্যাগে থাকা ৩০০ গ্রাম গান পাউডার উদ্ধার করা হয়। মাহবুব আলম আরও জানান, পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে অন্যরা পালিয়ে যায়। আটক মোহন শিবগঞ্জ উপজেলার চককীর্তি ইউনিয়নের শিবনগর ত্রি-মোহনী গ্রামের মো. মাইনুল ইসলামের ছেলে।
এ-ছাড়া, একই উপজেলার নয়ালাভাঙ্গা ইউনিয়নের রসিকনগর গ্রামের আব্দুল জাব্বার মিস্ত্রির ছেলে আ. মালেক (৩৮) কে ১ টি পিস্তল. ১ টি ম্যাগজিন ও ৩ রাউন্ড গুলিসহ আটক করা হয়। তিনি জানান, চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর থানা পুলিশ বারঘরিয়া ইউনিয়নের দৃষ্টি নন্দন পার্কের মহানন্দা নদী সংলগ্ন পাইকড় তলা এলাকা থেকে মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮ টায় অভিযান চালিয়ে মালেককে আটক করে। আটক মালেকের বিরুদ্ধে অস্ত্রসহ একাধিক মামলা রয়েছে।
অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আরও জানান, এছাড়াও ৩ জামায়াত কর্মী ও মাদকসহ বিভিন্ন মামলার আরো ৩৪ জনকে পুলিশ আটক করেছে। এ-সময় ৫শ বোতল ফেন্সিডিল ও ২০৫ গ্রাম গাঁজা উদ্ধার করা হয়। এর মধ্যে সদর থানা ওয়ারেন্টমূলে ও নিময়মিত মামলায় ৬জনকে, গোমস্তাপুর থানা ৫জনকে, নাচোল থানা ৩জনকে, ভোলাহাট থানা ৬জনকে এবং শিবগঞ্জ থানা ১৫জনকে আটক করে। জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বলেন, চাঁপাইনবাবগঞ্জে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অভিযান অব্যাহত রয়েছে। পুলিশ, র‌্যাব ও গোয়েন্দা সদস্যদের অভিযানে প্রতিনিয়ত মাদক ব্যবসায়ী, জেএমবি সদস্য, জাল টাকা, অস্ত্র ব্যবসায়ী, মাদক সেবনকারী, অবৈধ যানবাহন আটকসহ বিভিন্ন অপরাধ দমন করতে চালানো হচ্ছে এ-সব অভিযান। এ অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তিনি।

SHARE