বৈধ কাগজপত্র ছাড়া যানবাহন নিয়ে রাস্তায় বের না হবার আহবান : অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাহবুব আলম খান

বৈধ যানবাহন ও সঠিক কাগজপত্র ছাড়া রাস্তায় বের না হবার আহবান জানিয়েছেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাহবুব আলম খান পিপিএম। শনিবার বিকেলে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার ঘোড়া স্ট্যান্ড এলাকায় যানবাহনের কাগজ পরীক্ষা করার সময় চালকদের প্রতি তিনি এ-আহবান জানান। এ-সময় তিনি বলেন, যানবাহন ও সময়ের চেয়ে জীবনের মূল্য অনেক বেশি, কাজেই বেপরোয়া গতিতে যানবাহন না চালিয়ে সঠিক ভাবে সড়ক আইন ও ট্রাফিক সাইন মেনে রাস্তায় চলাচল করতে হবে। সজাগ হতে হবে সকলকেই। অবৈধ ও অপ্রাপ্ত বয়সে গাড়ি চালালে দুর্ঘটনার প্রবনতা কমবে না।
মোহাম্মদ মাহবুব আলম খান আরও বলেন, মোটরসাইকেল চালকরা যেন হেলমেট পরে রাস্তায় চলাচল করে সে জন্য পুলিশ সুপার টি এম মোজাহিদুল ইসলাম বিপিএম’র নির্দেশনায় জেলার ফিলিং স্টেশনগুলোর মালিকদের সাথে বসে আলোচনা করে হেলমেট ছাড়া তেল বিক্রি বন্ধ করার সিদ্ধান্ত হয়। পরে প্রতিটি ফিলিং স্টেশনে সিসি ক্যামেরা বসানো হয় এবং হেলমেট ছাড়া কেউ তেল নিতে আসলে ফিরিয়ে দেয়া হয়। এ উদ্যোগের ফলে মোটর সাইকেল চালকরা সচেতন হচ্ছেন। প্রায় সকলেই এখন হেলমেট পরে মোটরসাইকেল চালাচ্ছেন।
চাঁপাইনবাবগঞ্জের বিশ্বরোড, শহীদ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন বীরশ্রেষ্ঠ সেতুর টোল ঘর, বারঘরিয়া চত্বর, আকুন্দ বাড়িয়া ও মেলার মোড়ের মধ্যবর্তী স্থান, ঘোড়া স্ট্যান্ড, চৌধুরীর মোড়, ইসরাইল মোড়ে এক যোগে যানবাহনের কাগজ পরীক্ষা, অবৈধ যানবাহন আটক, অপ্রাপ্ত চালকদের আটক, অটোরিকশার চালকদের সচেতন করতে দেখা গেছে। মোটরসাইকেল চালকদের লাইসেন্স না থাকলে করা হচ্ছে মামলা ও জরিমানা। নম্বর বিহীন মোটরসাইকেল জব্দ করা হচ্ছে। সরেজমিনে ঘুরে এসব চিত্র দেখা গেছে।
সাধারণ মানুষ মনে করছেন এমন অভিযান একদিন, দুদিন করেই যেন বন্ধ হয়ে না হয়ে যায়। প্রতিনিয়ত অবৈধ যানবাহনের বিরুদ্ধে অভিযান চালাতে থাকলে মানুষ নিয়ম মেনেই রাস্তায় চলাচল করবে-এমনটাই প্রত্যাশা করেন সাধারণ মানুষ।

SHARE